প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বই মেলায় যৌন হয়রানি রোধে ডিএমপির বিশেষ টিম

মাসুদ আলম : অমর একুশে বই মেলাকে ঘিরে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থানে রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। মেলার ১৩ দিনে কোথাও কোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি। পুরো এলাকা জুড়ে চার স্তরের নিরাপত্তা বলয় গড়ে তোলা হয়েছে। র‌্যাব-পুলিশের পাশাপাশি একাধিক গোয়েন্দা বাহিনী কাজ করছেন। বখাটেদের নজরদারীতে রাখতে সাদা পোশাকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কাজ করছে। প্রত্যেককে আর্চওয়ে দিয়ে মেলায় প্রবেশ করতে হচ্ছে। একই সঙ্গে তল্লাশিও করা হচ্ছে। নারীদের জন্য আলাদা আর্চওয়ে, সেখানে নারী পুলিশ দায়িত্ব পালন করছে। পর্যাপ্ত নিরাপত্তা থাকায় খুশি দর্শনার্থীরাও।

শাহবাগ থানার ওসি আবুল হাসান বলেন, মেলা প্রাঙ্গণে আসা থেকে যাওয়া পর্যন্ত পুরোটা পথ দর্শনার্থীদের পর্যবেক্ষণ করছে পুলিশ। বইমেলা ও তার আশপাশ এলাকার প্রতিটি জায়গায় রয়েছে অসংখ্য সিসি ক্যামেরা। ফলে প্রত্যেকের গতিবিধি রয়েছে পুলিশের নখদর্পণে। ওয়াচ টাওয়ারের মাধ্যমে দর্শনার্থীদের গতিবিধিও লক্ষ্য করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, হঠাৎ প্রচণ্ড ভিড়ে বা অন্যকোনভাবে কাউকে হারিয়ে ফেললেন। যে হারিয়েছে তার কাছে কোন মোবাইল ফোন নেই! তখন কি করবেন? ভয় নেই, মেলায় পুলিশ কন্ট্রোল রুমে রয়েছে লস্ট এন্ড ফাউন্ড সেন্টার। পুলিশের সহযোগিতা নিয়ে হারিয়ে যাওয়া ব্যক্তিকে খুঁজে নিতে পারেন। শিশুদের কথা মাথায় রেখে পুলিশ কন্ট্রোল রুমের পাশেই আছে শিশু পরিচর্যা কেন্দ্র বা ব্রেস্ট ফিডিং সেন্টার।

এছাড়া দর্শনার্থীদের তৃষ্ণা মেটাতে বিনামূল্যে বিশুদ্ধ খাবার পানির ব্যবস্থা করেছে ডিএমপি। কেউ হঠাৎ অসুস্থ হলে চিকিৎসায় রয়েছে প্রাথমিক চিকিৎসা কেন্দ্র।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত