প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

টাইগারদের স্বাভাবিক আনন্দ-উল্লাসের বিপরীতে ভারতীয়দের উগ্র ব্যবহার কোনো সভ্য ও শিক্ষিত দেশের মানুষের পক্ষে সম্ভব নয়

শাওন হারুন :  মনে পড়ে, বাংলাদেশের প্রথম ক্রিকেট বিশ্বকাপের কথা। বাংলাদেশ হারালো পাকিস্তানকে। সে দিনের বাংলাদেশের আনন্দ-উল্লাসের বিপরীতে পাকিস্তানের হতাশা থাকলেও কোনো উত্তেজনা বা নেগেটিভ আচরণই আমরা দেখিনি। বরং অধিনায়ক ‘ওয়াসিম আকরামে’র মুখে ‘মেরা ভাই’ সম্বোধন শুনে আমরা আপ্লুত হয়েছিলাম। অবশ্য এটাই ইসলামের শিক্ষা, এটাই ইসলামের ভ্রাতৃত্ববোধের নমুনা। তবুও এখানকার কিছু অতি চেতনাবাদী মরদরা তাদের স্বভাবজাত ব্যবহারটাই করছে বিভিন্ন প্রতিক্রিয়ায়। যদি পাকিস্তান সে দিন অন্য আচরণ করতো তাহলে? ৯ ফেব্রুয়ারি বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনালে প্রতিবেশী ভারতকে হারিয়ে এই প্রথমই একটি বিশ্বকাপে বিজয়ী হলো। আমাদের টাইগারদের স্বাভাবিক আনন্দ-উল্লাসের বিপরীতে ভারতীয়দের যে উগ্র ব্যবহার দেখলাম সেটা কোনো সভ্য, শিক্ষিত দেশের দ্বারা সম্ভব নয়। ওই সময় আমাদের পতাকাকেও অপমান করা হয়েছে। উল্টা ওই ঘটনায় বাংলাদেশকে বিবাদী করে আইসিসিতে মামলা করে ভারত। ভারতঘেঁষা আইসিসি যাতে আমাদের তিনজন ক্রিকেটারকে বিভিন্ন মেয়াদে শাস্তিও প্রদান করে। আমরা হতবাক। কিসের ভিত্তিতে রায় দেয়া হলো? এমন রূঢ় অবস্থায়ও এখানকার তথাকথিত চেতনাবাদী গোষ্ঠীর কোনো লক্ষণীয় প্রতিক্রিয়া আমরা দখতে পাইনি। ফেসবুক থেকে

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত