প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ক্রমাগত একই জায়গায় বল ফেলায় শরিফুলের সাফল্যের রহস্য

স্পোর্টস ডেস্ক : যুব বিশ্বকাপের ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে নতুন বলে অসাধারণ বোলিং করেছে বাংলাদেশের যুবারা। যার ফল পুরো ইনিংসেই পেয়েছে আকবর আলীর দল। ম্যাচ শেষে পেসার শরিফুল ইসলাম জানান, প্রতিনিয়ত অনুশীলনই নতুন বলে অসাধারণ পারফরম্যান্সের মন্ত্র। ক্রমাগত একই জায়গায় বোলিং করেই সাফল্যের দেখা পেয়েছেন বোলাররা।

শরিফুল বলেন, ‘নতুন বলে বোলিং করে অনেক ভালো লেগেছে। আমরা নতুন বলে অনেক অনুশীলন করি। এক জায়গায় বোলিং করেছি বলেই সফল আজকে।’

শরিফুল, তানজিম হাসান সাকিব ও অভিষেক দাসের ত্রিমুখী আক্রমণে প্রথম দশ ওভারে সুবিধাই করতে পারেনি ভারত। এই সময়ে দলটি মাত্র এক উইকেটে ২৩ রান তুলতে পেরেছে।

বাংলাদেশের বোলার সাকিব প্রথম তিন ওভারে মাত্র একটি ওয়াইড দেন। এরমধ্যে টানা ১৭টি ডট বল দেন তিনি। ক্ষুরধার আক্রমণ চালিয়ে গেছেন বাকি দুজনও।

শুরুর ভাগেই চাপে পড়া ভারতের উইকেট আদায় করে বাংলাদেশ। ওপেনার দিবিনাশ সাক্সেনার উইকেট আদায় করে নেন অভিষেক। ১৭ বলে দুই রান করে মাহমুদুল হাসান জয়কে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন সাক্সেনা।

প্রথম দশ ওভারের পরও দাপুটে বোলিং অব্যাহত রাখে বাংলাদেশ। এরই সুফল নেন দেন পেসার শরিফুল। শুরু থেকেই দেখেশুনে খেলা জয়সাওয়ালকে তানজিদ হাসানের ক্যাচ বানিয়ে ফেরান তিনি। ১২১ বলে ৮৮ রান করেন জয়সাওয়াল।

এরপরের বলেই সিদেশ বীরকে লেগ বিফোর উইকেটের মাধ্যমে ফেরান শরিফুল। জয়সাওয়ালকে হারিয়ে আরও ক্ষুরধারে পরিণত হয় বাংলাদেশের বোলিং। শেষের ব্যাটসম্যানরা সুবিধা করতে না পারায় ১৭৭ রানেই অলআউট হয় ভারত।

সর্বাধিক পঠিত