প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারতে ৭৮ হাজার রুপি পর্যন্ত কর সাশ্রয়ের সুযোগ

রাশিদ রিয়াজ : ভারতে প্রতিটি অর্থবর্ষ শেষ হয় আয়করদাতাদের করের বোঝা কম করার ভাবনা শুরুর মধ্যে দিয়ে। কোথায় লগ্নি করলে কর কমানো যাবে, তারই সন্ধান শুরু হয় এখনই। এমনই সময় কর বাঁচানোর নানা পন্থা নিয়ে প্রচার শুরু করল ভারতের বৃহত্তম আর্থিক পরিষেবা অ্যাপ ETMONEY। এর মাধ্যমে গ্রাহকরা ৭৮ হাজার টাকা পর্যন্ত বাঁচাতে পারবেন।

আগামী ১ ফেব্রুয়ারি সংসদে আগামী আর্থিক বছরের সাধারণ বাজেট পেশ করতে চলেছেন অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামণ। এই বাজেট ঘিরে বিভিন্ন মহলের পাশাপাশি আয়করদাতেদের উৎসাহ তুঙ্গে। এ দিকে এ দেশে প্রতিটি অর্থবর্ষ শেষ হয় আয়করদাতাদের করের বোঝা কম করার ভাবনা শুরুর মধ্যে দিয়ে। কোথায় লগ্নি করলে কর লাঘব করা যাবে, তারই সন্ধান শুরু হয় এখনই। এমন এক সময় কর বাঁচানোর নানা পন্থা নিয়ে প্রচার শুরু করল ভারতের বৃহত্তম আর্থিক পরিষেবা অ্যাপ ETMONEY। এর মাধ্যমে গ্রাহকরা ৭৮ হাজার টাকা পর্যন্ত নিজেদের অর্থ বাঁচাতে পারবেন।

ETMONEY-এর এই ক্যাম্পেনের নেপথ্যে মূল ভাবনা DAIKO FHO-র। আর Cellardoor-এর সঙ্গে গাঁটছড়া বেঁধে এটি প্রযোজনা করেছে টাইমস ইন্টারনেটের মার্কেটিং টিম। এই টিমের নেতৃত্বে সংস্থার COO সন্তোষ নভলানি। ETMONEY-র ২০২০ ট্যাক্স সেভিংস ক্যাম্পেনে দেখা যাবে বিশ্বপতি সরকার এবং নমিত দাসকে। মজার ছলে যাঁরা গোটা বিষয়টি দর্শকদের সামনে তুলে ধরেছেন।

এই প্রসঙ্গে ETMONEY-র COO এবং মার্কেটিং শাখার প্রধান সন্তোষ নভলানি বলেন, ‘সারা বছরের তুলনায় শেষ ত্রৈমাসিকেই ভারতীয় আয়কর দাতারা তাঁদের কর বাঁচানোর নিয়ে সবথেকে বেশি চিন্তিত হয়ে পড়েন। এই ক্যাম্পেনের মাধ্যমে কী করলে কর বাঁচানো যাবে, সে সম্পর্কে সচেতন করার পাশাপাশি কর বাঁচানোর পণ্যগুলি সম্পর্কেও আমরা গ্রাহকদের অবহিত করেছি। ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে মার্চ মাস পর্যন্ত এই কর সাশ্রয়ের মরশুমে করদাতারা যাতে মোট ৩০০ কোটি টাকার বেশি বাঁচাতে পারেন, সেটাই আমার লক্ষ্য। একইসঙ্গে আমরা নিজেদের দেশের মধ্যে কর সাশ্রয়ের সেরা গন্তব্য হিসেবে তুলে ধরতে বদ্ধপরিকর।’ অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন DAIKO FHO-র প্রতিষ্ঠাতা তথা CEO রাজেশ আগরওয়াল। এই সময়

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত