প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মিরসরাইয়ে স্কুল শিক্ষার্থীকে চুরিকাঘাত করলো ক্যান্টিন পরিচালক

নুরুল আলম, মিরসরাই প্রতিনিধি : মিরসরাইয়ে এক স্কুল ছাত্রকে চুরিকাঘাত করেছে ওই স্কুলের ক্যান্টিন এর পরিচালক। বুধবার (২৯ জানুয়ারি) বিকেলের দিকে উপজেলার করেরহাট কেএম উচ্চ বিদ্যালয় ক্যাম্পাসে এই ঘটনা ঘটেছে। আহত ওই ছাত্রের নাম ইফতেখার উদ্দিন। সে দশম শ্রেণির ছাত্র। এই বিষয়ে আহত ছাত্রের মা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাহার উদ্দিন ভূঁইয়ার কাছে অভিযুক্ত ক্যান্টিন পরিচালক বাবুলের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। বাবুল বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি শাখাওয়াত উল্লাহ রিপনের মেয়ের জামাই। আহত স্কুল ছাত্র ইফতেখার করেরহাট ইউনিয়নের কাটাগাং এলাকার বেলায়েত হোসেনের পুত্র।

আহত ছাত্র ইফতেখার উদ্দিনের মা শিরিনা আক্তার অভিযোগ করেন, প্রতিদিনের ন্যায় বুধবার বিকেলে অন্য সহপাঠিদের সাথে ক্যান্টিনে নাস্তা করতে যায় আমার ছেলে। এসময় ক্যান্টিন পরিচালক বাবুল ইফতেখারের সাথে কোলাকুলি করে পাশে চেয়ারে বসতে বলে। এসময় হটাৎ একটি চুরি দিয়ে তার শরীরে আঘাত করে। এরপর সহপাঠিরা উদ্ধার করে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যায়। তার ক্ষতস্থানে ৮টি সেলাই দেয়া হয়েছে। কোন কারণ ছাড়াই বাবুল আমার ছেলেকে চুরি দিয়ে কুপিয়েছে।

এই বিষয়ে করেরহাট কেএম উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাহার উদ্দিন ভূঁইয়া বলেন, আমরা আজ এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় অনুষ্ঠান নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম। বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র ইফতেখারের মা শিরিনা আক্তার ক্যান্টিন পরিচালক বাবুল এর বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে। আমি বিষয়টি বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি, সদস্যদের অবহিত করেছি এবং ক্যান্টিনে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছি। বাবুল আর ক্যান্টিন পরিচালনা করতে পারবে না। আশা করছি বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটি এই বিষয়ে সুষ্ঠু সমাধান দেবে

এই বিষয়ে বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি শাখাওয়াত উল্লাহ রিপন জানান, বুধবার সারাদিন উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রোগ্রামের দাওয়াত নিয়ে ব্যস্ত ছিলাম। প্রধান শিক্ষক বিষয়টি আমাকে অবহিত করেছে। সুষ্ঠু তদন্ত করে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। সম্পাদনা : তন্নীমা আক্তার

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত