প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ব্যাটারি পুড়িয়ে তৈরি হচ্ছে সীসা, মরছে গবাদি পশু

আফজাল হোসেন, শ্রীপুর প্রতিনিধি : শীতলক্ষ্যা নদীর তীরঘেষা গ্রাম কাপাসিয়া উপজেলার সিংহস্ত্রী ইউনিয়ন। গ্রামের পিচঢালা পথে কিছুদূর যেতেই চোখে পড়লো টিনশেডের তৈরী কারখানা। ভিতরে ১০/১২ জন শ্রমিক পুরাতন ব্যাটারির প্লেট খুলছে, কেউ কেউ আবার প্লেট পুড়ানোর জন্য আগুন জ্বালাচ্ছে চুল্লিতে।

১নং সিংহস্ত্রী ইউনিয়নের বড়ইবাড়ি এলাকায় পাঁচ মাস পূর্বে অনুমোদন ছাড়াই সীসা তৈরী ও এসিড উৎপাদন কারখানা গড়ে উঠেছে। এর বিষাক্ত কালো ধোঁয়ার বিষবাষ্পে আচ্ছন্ন বড়ইবাড়ি ও তার আশপাশের গ্রামগুলো। এত করে জন-জীবন ও পশুপাখির স্বাভাবিক চলাচল বিঘ্নিত হচ্ছে।

এলাকাবাসি জানান, কারখানার বিষাক্ত আক্রমণে গত দুই মাসে এই এলাকার প্রায় ৩০ টি গরু মারা গেছে।
অনুসন্ধানে জানা যায়, গাইবান্ধা এলাকার শাকিল আহমেদ নামে এক ব্যক্তি স্থানীয় সুরুজ মিয়ার কাছ থেকে মাসিক ৭ হাজার টাকার বিনিময়ে জমিটি ভাড়া নিয়ে ব্যাটারি কারখানাটি স্থাপন করেন। তারা বিভিন্ন এলাকা থেকে পুরাতন ব্যাটারি সংগ্রহ করে প্লেটগুলো খুলে আগুনে পুড়িয়ে সীসা তৈরী করে। পরে বিভিন্ন কারখানায় নতুন ব্যাটারি তৈরীর জন্য এই সীসাগুলো সরবরাহ করে।

গাজীপুর জেলার ডেইরি এসাসিয়েশনের সভাপতি ও বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর উপ-কমিটির অর্থ বিষয়ক সম্পাদক আকরাম হোসেন জানান, আমরা অনতিবিলম্বে এই কারখানাটি বন্ধ করার জন্য ইতিমধ্যে প্রশাসনকে বিষয়টি অবগত করেছি। প্রশাসন এ ব্যাপারে উদ্যোগ না নিলে আমরা এলাকাবাসির স্বার্থে বৃহৎ আন্দোলন গড়ে তুলব।

কাপাসিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ইসমত আরা জানান, অবৈধ ব্যাটারি কারখানার বিষয়টি আমার জানা ছিল না। খুব শীঘ্রই কারখানাটির বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। সম্পাদনা : রাকিবুল

সর্বাধিক পঠিত