প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঐতিহাসিক ভুল শোধরাতেই সিএএ আনা হয়েছে, বললেন মোদী

আসিফুজ্জামান পৃথিল : ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘যারা সংবিধানের কথা বলছে তারাই একদিন সংবিধানকে বাতিলের দলে ফেলে দিয়েছিলো। দেশভাগের সময় ভারত জুড়ে একটি বিভেদ রেখা টানা হয়েছিলো যা মানুষকে বিভক্ত করেছিলো।’ হিন্দুস্তান টাইমস, এনডিটিভি

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন নিয়ে বিরোধী রাজনৈতিক দলগুলি আসলে ভাটব্যাঙ্ক রাজনীতি করছে, বলে দাবি করেন মোদী। তিনি বলেন, ‘ওরা কেন সেই অত্যাচারের কথা মনে রাখছে না, যখন এ দেশে এসে আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছিল নিপীড়িতরা। বিরোধীদের মধ্যে কেউ কেউ আবার দলিতদের কণ্ঠস্বর হিসাবেও কাজ করছে। অথচ সেই একই একই লোক যারা পাকিস্তানে দলিতদের উপর হওয়া অত্যাচারকে উপেক্ষা করছে, তারা ভুলে যাচ্ছেন যে সব নির্যাতিত মানুষ পাকিস্তান ছেড়ে ভারতে এসেছেন তাদের মধ্যে বেশিরভাগই হলেন দলিত।’

নাগরিকত্ব আইন নিয়ে ইউরোপীয় ইউনিয়নের পার্লামেন্টে ৬টি প্রস্তাব গৃহীত হয়েছে,ও বিরোধীতা করেন মোদী।

ইউরোপীয় ইউনিয়ন উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেছে, ভারতের এই ঘটনা বিশ্বের ও বৃহত্তম রাষ্ট্রহীনতা সঙ্কট তৈরি করবে।

পাশাপাশি, ইকোনমিস্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিটের ডেমোক্রেসি ইনডেক্সে ভারত আরও ১০ ধাপ পিছিয়ে গেছে। বিরোধীদের দাবি মোদি সরকারের কার্যকলাপেই ভারতের সুনাম গোটা বিশ্বের কাছে নষ্ট হচ্ছে।

সর্বাধিক পঠিত