প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গুলিতে রাজমিস্ত্রি ওবায়দুল হত্যা পালিয়ে বেড়াচ্ছে নিহতের পরিবার

ইসমাঈল ইমু : রাজধানীর তেজগাঁও এলাকার ডিএনসিসির অধীনে ২৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর শামীম হাসানের আগ্নেয়াস্ত্রের গুলিতে রাজমিস্ত্রি ওবায়দুল নিহতের ঘটনার ৬ মাস অতিবাহিত হলেও কোন সুরাহা হয়নি। গুলিতে ব্যবহৃত আগ্নেয়াস্ত্র জব্দ করা হলেও ব্যালাষ্টিক রিপোর্ট পাওয়া যায়নি। পাশাপাশি আগ্নেয়াস্ত্রেও মালিক শামীম হাসানের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা নেয়া হয়নি। উল্টো শামীম হাসানের ক্যাডাররা গুলিতে নিহত ওয়ায়দুলের পরিবারকে বাড়াবাড়ি না করতে হুমকি দিচ্ছে।

গত বছরের জুন মাসে আওয়ামী লীগ নেতার পিস্তলের গুলিতে ওবায়দুল নামের এক রাজমিস্ত্রির নিহত হয়। ওই খুনের ঘটনাটি কাউন্সিলর শামীম হাসানের গ্রামের বাড়িতে ঘটেছে। ওবায়দুল মুন্সীগঞ্জ জেলার সিরাজদিখানে শামীম হাসানের গ্রামের বাড়িতে ঘর নির্মাণকাজের তদারকির দায়িত্বে ছিলেন। আর সেখানেই গুলিবিদ্ধ হয়ে তার মৃত্যু হয়।

এ বিষয়ে কাউন্সিলর শামীম বলেন, সেখানে তার বাড়ির নির্মাণ কাজ চলছিল। নির্মাণ শ্রমিকদের টাকা দিতে গিয়েছিলেন। ওবায়দুলকে টাকা দিয়েই ঢাকায় চলে আসি। পরে (ওবায়দুলের গুলিবিদ্ধ হওয়ার খবর) শুনে হাসপাতালে যাই। অস্ত্রের বিষয়ে শামীম বলেন, কার অস্ত্রের গুলিতে খুন হয়েছে, তা তদন্ত করে বের করবে পুলিশ। ঘটনার দুইদিন পর শামীম তার অস্ত্রটি সিরাজদিখান থানায় জমা দিয়েছিল। সে আগ্নেয়াস্ত্র ব্যালাষ্টিক পরিক্ষার জন্য সিআইডির পরিক্ষাগারে পাঠানো হয়েছে। গত ৬ মাসেও এর কোন রির্পোট পাওয়া যায়নি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত