প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

১৪ বছরে ২৮৬ বিয়ে করা সেই প্রতারক যুবক গ্রেপ্তার

জেরিন : সম্প্রতি সময় টিভির জনপ্রিয় অনুষ্ঠান ‘সময়ের অসঙ্গতি’র এবারের পর্ব প্রচার হয়েছে। আর এই অনুষ্ঠানের অনুসন্ধানে এবার বেরিয়ে এসেছে এক প্রতারক মাত্র ১৪ বছরে ২৮৬টি বিয়ে করার কাহিনী। অনুষ্ঠানটির সার্বিক তত্ত্বাবধানে ছিলেন সালাউদ্দিন সেলিম। এর পর পরই পর্বটি ভাইরাল হয় নেট দুনিয়ায়। সূত্র: সময় টিভি

মাত্র ৩৫ বছর বয়সে সে নাকি ২৮৬ স্ত্রীর স্বামী। নাম তার জাকির হোসেন ব্যাপারী। তার কীর্তি ছাপিয়ে গেছে ফিল্মি দুনিয়াকেও। মাত্র ১৪ বছরে ২৮৬টি বিয়ে করে জাকির তাক লাগিয়ে দিয়েছে দুনিয়াকে। বিয়ে করা তার তার নেশা এবং পেশা। বিয়ের ইনকাম দিয়েই চলে প্রতারক জাকিরের সংসার। তার গ্রামের বাড়ি লালমনিরহাট জেলার আদিত্যপুর থানার দূর্গাপুর।

পিতার নাম মৃত মনির হোসেন। বর্তমানে থাকেন টঙ্গীর আইচপাড়ার আহসান মোল্লা রোডে।

তার এই প্রতারণার কীর্তি সর্বপ্রথম জনসম্মুখে আসে ২০১৮ সালে এক নারীর করা ধর্ষণ ও প্রতারণার মামলার মাধ্যমে। পরে এই মামলায় গ্রেফতার হয়ে তার স্থান হয় শ্রীঘরে। কিন্তু জামিনে বের হয়ে আবারো সে ফিরে যায় তার বিয়ে করা পুরনো পেশায়। পরে এক তরুণীর মামলায় আবারো এই ভণ্ডের জায়গা হয়েছে শ্রীঘরে। এরপর একে একে বহু নারী সাহস করে তার বিরুদ্ধে মুখ খোলেন, মামলা করেন।

জীবনের সব প্রয়োজনই সে মিটিয়েছে এই বিয়ে করার ফাঁদ ফেঁদে। যৌন সংসর্গে লিপ্ত হওয়ার পর টাকা-পয়সা হাতিয়ে সে পালিয়ে যেত। পরে অন্য মহিলাকে ফাঁসিয়ে বিয়ে করত। তার সঙ্গেও ঘটত একই ঘটনা। মহিলাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ অবস্থার ভিডিও তুলে ব্ল্যাকমেলিং করেও সে টাকা-পয়সা হাতিয়ে নিত। এমনকি তার ঔরসে জন্ম নিয়েছে এমন বেশ কয়েকটি শিশুর পরিচয়ও পাওয়া গেছে। কিন্তু নিজ সন্তানের নিষ্পাপ মায়াবী চাহনিও তাকে এতটুকু দমাতে পারেনি এসব অপকর্ম থেকে।

এরপর তার নামে তেজগাঁও থানায় অভিযোগ দায়ের হয়। পুলিশ তদন্তে নেমে ঢাকার মনিপুরি পাড়া থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে। পুলিশি জেরার মুখে সে তার অপরাধের কথা স্বীকার করে।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত