প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সারাদেশে ক্ষুদে শিক্ষার্থীদের নির্বাচন চলছে

আসিফ কাজল : শনিবার (২৫ জানুয়ারি) দেশের মাধ্যমিক ও দাখিল মাদ্রাসার চিত্রটা অন্য রকম। নেই কোনো শ্রেণীপাঠ নেই এসেম্বেলী। যোগ্য নেতৃত্ব বেছে নিতেই ব্যস্ত এসব শিক্ষার্থীরা। ঢাকার মতিঝিল সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে সরেজমিনে দেখা যায়, বিদ্যালয় প্রাঙ্গণ জুড়ে সাদা-কালো ও রঙিন কাগজে হাতে লেখা পোস্টার ঝোলানো রয়েছে। সে সব পোস্টারে প্রার্থীদের পক্ষে ভোট প্রার্থনা চলছে। একই সঙ্গে পোস্টারে প্রার্থীরা তাদের তুলে ধরেছে নির্বাচনী নানা ইশতেহার।

ভোট কক্ষে জাতীয় পর্যায়ের ভোটের মতোই পোলিং অফিসার, প্রার্থীদের এজেন্টরা উপস্থিত রয়েছে। তারা নানাভাবে ভোটারদের সহায়তা করছে। সুন্দর ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ক্ষুদে শিক্ষার্থীরা তাদের গণতান্ত্রিক অধিকার প্রয়োগ করছে। সকাল ৯টায় শুরু হওয়া এ ভোটগ্রহণ বিরতিহীনভাবে চলবে দুপুর ২টা পর্যন্ত। বিকেলে বিজয়ীদের তালিকা প্রকাশ করা হবে।

শিক্ষার্থীদের এ নির্বাচন কার্যক্রম পরিদর্শন করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। সকালে মতিঝিল সরকারি বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে আসেন। এ সময় তিনি বিভিন্ন ভোট কেন্দ্র ঘুরে দেখেন।

দেশের মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও দাখিল মাদ্রাসায় স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন আয়োজন করা হয়েছে। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের তথ্যানুযায়ী, এ বছর দেশের ৮টি বিভাগ ও ৮টি মহানগরের আওতাধীন ৫৫৯টি উপজেলা/থানায় মোট ২২ হাজার ৯২৬টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। যার মধ্যে ১৬ হাজার ৩৮৪টি মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও ৬ হাজার ৫৪২টি দাখিল মাদ্রাসা রয়েছে।

এবার মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে ১ লাখ ৩১ হাজার ৭২টি ও মাদ্রাসায় ৫২ হাজার ৩৩৬টি পদে প্রার্থীরা অংশগ্রহণ করছে। নির্বাচনে মোট ১ কোটি ১৫ লাখ ৫৩ হাজার ৯১৬ জন ভোটার রয়েছে। তাদের মধ্যে ৬২ লাখ ৫১ হাজার ৬৮৩ জন ছাত্রী (৫৪ দশমিক ১০ শতাংশ) রয়েছে।

শিক্ষার্থীদের মধ্যে গণতন্ত্র চর্চা তৈরি করতে ২০১৬ সাল থেকে ‘স্টুডেন্টস কেবিনেট নির্বাচন’র আয়োজন করা হয়। শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের মধ্যে গণতন্ত্র চর্চাসহ একে অপরকে সহযোগিতা, শ্রদ্ধা প্রদর্শন, শতভাগ শিক্ষার্থী ভর্তি ও ঝরে পড়া রোধে সহযোগিতা করাই এর মূল লক্ষ্য।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত