প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিয়ে করতে এসে বরের ঠাঁই হলো কারাগারে

নিউজ ডেস্ক : বাল্যবিয়ে করতে আসার অপরাধে বিয়ের আসর থেকে বরকে ২০ দিন কারাদণ্ড প্রদান করে জেল হাজতে পাঠিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। ফরিদপুরের সদরপুর উপজেলার চরবিষ্ণুপুর ইউনিয়নে বিয়েবাড়িতে বর যখন খাওয়ায় ব্যস্ত তখনই হাজির হন ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট এবং এ রায় দেন। খবর : বাংলাদেশ জার্নাল।

বৃহস্পতিবার বিকেলে উপজেলার চরবিষ্ণুপুর ইউনিয়নের কলাডাঙ্গী গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, কলাডাঙ্গী গ্রামের দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর সঙ্গে একই উপজেলার কৃষ্ণপুর ইউনিয়নের চরঠেঙ্গামারী গ্রামের রহমান শেখের ছেলে মো. শিপন শেখের (২৮) বিয়ের দিন ধার্য ছিল বৃহস্পতিবার।

বাল্যবিয়ে হচ্ছে এমন সংবাদে বিকেল ৫টার দিকে কলাডাঙ্গী গ্রামে হাজির হন ইউএনও পূরবী গোলদার। তখন বর ও বরযাত্রীরা খাওয়া-দাওয়া করছিলেন। এমন সময় বর শিপনকে আটক করেন ইউএনও। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাকে ২০ দিনের কারাদণ্ড প্রদান করা হয়। এদিকে কনের বাবার কাছ থেকে মুচলেকা নেয়া হয়।

সদরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা পূরবী গোলদার বলেন, বাল্যবিয়ে প্রতিরোধে কঠোর অবস্থানে রয়েছে প্রশাসন। বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন-২০১৭ সালের ৭ এর ১ ধারায় ২০ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করা হয় বর শিপনকে। এছাড়া মেয়েকে প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দেবে না মর্মে মুচলেকা নেয়া হয়।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত