প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দেশের প্রতি দায়িত্ববোধ থেকে শিক্ষক-গবেষকরা উচ্চশিক্ষা ও গবেষণার মাধ্যমে প্রতিনিয়ত জ্ঞানের নব দিগন্ত উন্মোচন করবেন, বললেন রাষ্ট্রপতি

সমীরণ রায়: বুধবার রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে ‘ডিজিটাল সার্ভিস ডিজাইন অ্যান্ড প্লানিং ল্যাব’ শীর্ষক ছয় দিনব্যাপী এ কর্মশালায় সমাপনী অনুষ্ঠানে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক এবং গবেষকদের উদ্দেশ্যে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর আচার্য আরও বলেন, এক্ষেত্রে জ্ঞাণ আহরণ, লালন, অনুশীলন ও বিতরণে তাদের অধিক তৎপর, আন্তরিক ও অর্থবহ ভূমিকা পালন করতে হবে।

তিনি বলেন, আসন্ন চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে দক্ষ ও বিশেষজ্ঞ প্রযুক্তিবিদ তৈরি করতে হবে। উচ্চশিক্ষা ও প্রশিক্ষণের পাশাপাশি বিদেশি প্রতিষ্ঠান ও প্রযুক্তিবিদদের মধ্যে সহযোগিতা বাড়াতে হবে। সরকারের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগসহ দেশের প্রকৌশল, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো এ ব্যাপারে উদ্যোগ গ্রহণ করবে।

আবদুল হামিদ বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোতে ই-গভর্নেন্স কোর্স চালুসহ ইন্টিগ্রেটেড ইউনিভার্সিটি ইনফরমেশন ম্যানেজমেন্ট প্ল্যাটফর্ম দ্রুত বাস্তবায়নের জন্য ইউজিসিসহ সব বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে পদক্ষেপ নিতে হবে।

রাষ্ট্রপতি বলেন, বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের প্রায় ২ হাজার ৭৪টি ডিজিটাল সেবা শনাক্ত এবং এগুলোর বাস্তবায়নে প্রাথমিক পরিকল্পনা করা হয়েছে। এ কার্যক্রমের অংশ হিসেবে ইতোমধ্যে ২৩ টি মন্ত্রণালয়ের ৭২৩ টি সেবাকে ডিজিটাল সার্ভিসের ডিজাইন এবং পরিকল্পনা করে ২০২১ সালের মধ্যে বাস্তবায়নের পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

ইউজিসির চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী শহীদুল্লাহ’র সভাপতিত্বে আরও উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, শিক্ষা উপমন্ত্রী মহিবুল হাসান চৌধুরী, রাষ্ট্রপতি কার্যালয়ের জনবিভাগের সচিব সম্পদ বড়ুয়া প্রমুখ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত