প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আনন্দবাজারের খবর
তসলিমা নাসরিনকে ভারতের নাগরিকত্ব দেয়া হয়েছে, বললেন সীতারমন

আসিফুজ্জামান পৃথিল: পশ্চিমবঙ্গের পত্রিকাটি এও জানিয়েছে, ভারতের অর্থমন্ত্রীর এই তথ্যটি সঠিক নয়। বাংলাদেশের নির্বাসিত লেখিকাকে ভারতের নাগরিকত্ব দেয়া হয়নি।

জন্মসূত্রে পাকিস্তানি গায়ক আদনান সামিকে ভারতের নাগরিকত্ব দেওয়া হয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশ থেকে নির্বাসিত লেখিকা তসলিমা নাসরিনে শুধুমাত্র ভারতে বসবাসের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। সীতারামনের মন্তব্যে অস্বস্তিতে পড়েছে বিজেপি।

রোববার চেন্নাইয়ে সিএএ নিয়ে একটি অনুষ্ঠানে যোগ দিয়েছিলেন নির্মলা সীতারামন। সেই অনুষ্ঠানে তিনি বিদেশিদের নাগরিকত্ব সংক্রান্ত তথ্য-পরিংসংখ্যান তুলে ধরেন। তিনি বলেন, ‘২০১৬ থেকে ১৮ এই দু’বছরে আফগানিস্তান থেকে ভারতে আসা ৩৯১ জন মুসলিমকে নাগরিকত্ব দেওয়া হয়েছে। পাকিস্তানের শরণার্থী হিসেবে নাগরিকত্ব দেওয়া হয়েছে ১৫৯৫ জনকে। এই সময়ের মধ্যেই আদনান সামিকে নাগরিকত্ব দেওয়া হয়েছে, সেটা একটা উদাহরণ। অন্য উদাহরণ তসলিমা নাসরিনকে নাগরিকত্ব দেওয়া। এটাই প্রমাণ করে আমাদের বিরুদ্ধে সমস্ত অভিযোগ মিথ্যা।’

নব্বইয়ের দশকের মাঝামাঝি তসলিমার লেখালেখি ও উপন্যাসে ‘মুসলিম-বিরোধী’ মতবাদ প্রতিষ্ঠা পেয়েছে বলে অভিযোগ তুলে মৌলবাদীরা প্রাণনাশের হুমকি দেন। ফলে দেশ ছাড়তে বাধ্য হন তিনি। তসলিমা সুইডেনের নাগরিকত্ব পান। পরে ভারতে বসবাসের আবেদন করেন। সেই আবেদন মঞ্জুর করে ২০০৪ সালে তাকে শুধুমাত্র ভারতে বসবাসের অনুমতি দেয় কেন্দ্র সরকার।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত