প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাণিজ্য মেলায় দর্শনার্থীদের নজর কেড়েছে বাঁশ-পাট ও বেতের তৈরি কারাপণ্য

সুজন কৈরী :  কারাভ্যন্তরে কয়েদিদের তৈরি দেশিয় এসব পণ্যের পাশাপাশি অন্য পণ্যগুলোর দাম নাগালের মধ্যে থাকায় সন্তুষ্টি প্রকাশ করছেন ক্রেতারা। কারাবন্দিদের সমাজের মূল স্রোতে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য এই ভিন্ন উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানিয়েছে কারা কর্তৃপক্ষ। এবারের মেলায় দোতলা বিশিষ্ট স্টলের সাইজ হচ্ছে ৬২৫ বর্গফুট। মেলা শুরুর দিন থেকেই স্টল চালু করা হয়। তবে গুছিয়ে উঠতে কিছুটা সময় লেগেছে। একজন ডেপুটি জেলারের নেতৃত্বে স্টলে বেশ কয়েকজন কারাগারের স্টাফ কর্মরত। দুই শিফটে ডিউটি করেছেন তারা। স্টলে কারাবন্দিদের তৈরি কাঠের তৈরি সিংহাসন-নৌকা বেতের তৈরি মোড়া, প্লাস্টিকের মোড়া, কাঠের, সুতি তোয়ালে, টি-শার্ট, পাঞ্জাবি, শার্ট, লুঙ্গি, শাড়ি, বিছানার চাদর, থ্রিপিস ও পুঁতির কলমদানিসহ শতাধিক পণ্য রয়েছে। দাম সর্বনিম্ম ২০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ অর্ধলক্ষাধিক টাকা।

এবারের স্টলে কাঠের তৈরি দৃষ্টিনন্দন বড়-ছোট ও মাঝারি আকারের সিংহাসন দর্শনার্থীদের নজর কেড়েছে।  স্টলটির ম্যানেজার ও রংপুর কারাগারের ডেপুটি জেলার মো. আব্দুল্লাহিল ওয়ারেস বলেন, প্রথম দিন থেকে অনেক স্টলে বিক্রি না হলেও আমাদের বিক্রি হয়েছে। পাট-বেত ও বাঁশের তৈরি পণ্যগুলো দর্শনার্থীদের বেশি পছন্দ। মঙ্গলবার পর্যন্ত প্রায় ৫ লাখ টাকার পণ্য বিক্রি হয়েছে। মেলা শেষদিন পর্যন্ত প্রায় ২০ থেকে ২৫ লাখ টাকার বিক্রি হবে আশা করছি। এসব পণ্যের মূল্যের অর্ধেক অংশ যে বন্দি বানিয়েছেন তিনি পাবেন। মেলা শেষ হলে হিসাব করে প্রত্যেকটি বিক্রিত পণ্যের অর্ধেক মূল্য সংশ্লিষ্ট বন্দির ব্যাংক অ্যাকাউন্টে জমা করা হবে। বাকি অর্ধেক সরকারি কোষাগারে জমা হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত