প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

১ কেজি খেজুর গুড়ের দাম ৯০ টাকা

ডেস্ক রিপোর্ট  : শীত এলেই ব্যাপকভাবে জমে ওঠে চুয়াডাঙ্গা জেলার ঐতিহ্যবাহী সরোজগঞ্জ বাজারের খেজুর গুড়ের হাট। ভোরের আলো ফুটতে না ফুটতেই সরোজগঞ্জ হাইস্কুল মাঠে গুড়ের ভাড় নিয়ে হাজির হয় গুড় উৎপাদনকারীরা। তবে ইটভাটার জ্বালানির জন্য খেজুর গাছ কেটে ফেলায় রস আহরণ কম হওয়ায় গুড়ের হাট ঐতিহ্য হারাতে বসেছে। যে কারণে গত কয়েক বছরের তুলনায় এ বছর খেজুর গুড়ের দাম বেড়েছে।

জানা যায়, প্রতি শুক্রবার ও সোমবার ২০-৩০ ট্রাক খেজুর গুড় দেশের বিভিন্ন জেলায় রফতানি করা হয়। শীতের তিন মাস এ হাটটি বেশ জমজমাট থাকে। দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে পাইকারি ব্যবসায়ীরা এ হাটে এসে খেজুর গুড় কিনে নিয়ে যায়। প্রতি সপ্তাহে দুই দিন খেজুর গুড় ৯০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হয়। যা গত বছর ছিল ৭০ টাকা।

কয়েকজন গুড় বিক্রেতা জানান, গাছ থেকে রস সংগ্রহ করে গুড় তৈরি করা খুব কষ্টের কাজ। এ জন্য অনেকে এ পেশা ছেড়ে দিচ্ছেন। বর্তমানে খেজুর গাছ ইটভাটায় পোড়ানোর কারণে গাছের সংখ্যা দিন দিন কমে আসছে। ফলে গাছিরা রসের অভাবে গুড় তৈরি করতে পারছে না। এ কারণে গুড়ের দাম বেশি।

পাইকারি ব্যবসায়ীরা জানান, গত বছরের চেয়ে এ বছর খেজুর গুড়ের দাম বেশি। হাটে আমদানি কম হওয়ায় গুড়ের দাম বেড়েছে।

বরিশাল থেকে আসা পাইকারি ব্যবসায়ী আমজাদ হোসেন জানান, তিনি চুয়াডাঙ্গার খেজুরের গুড় পাইকারি কিনে বিভিন্ন এলাকায় বিক্রি করেন। গুড়ের মান ভালো হওয়ায় প্রতি হাটে ২-৪ ট্রাক গুড় কেনেন। তবে গতবারের চেয়ে এবার দাম বেড়েছে।

 

জেলার খেজুর গুড় বিক্রেতাদের দাবি, স্থানীয় প্রশাসন যদি ইটভাটায় খেজুর গাছ পোড়ানো বন্ধ ও খেজুর গাছ কাটা বন্ধে একটু নজর দেয় তাহলে গুড়ের হাট আবারও আগের মতো জমে উঠবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত