প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সাভারে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত ১, গ্রেপ্তার তিন

এম এ হালিম, সাভার প্রতিনিধি : সাভারে একটি মার্কেটের মালিকানা নিয়ে দ্বন্দের জের ধরে মাহফুজুর রহমান মাফু (৪০) নামে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করেছে প্রতিপক্ষের লোকেরা।

এঘটনায় নিহতের স্ত্রী রোকসানা বেগম বাদী হয়ে সাভার মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। মামলা দায়েরের পর পুলিশ অভিযান চালিয়ে হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে তিন ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করেছে।

রোববার রাতে সাভার বাজার বাসষ্ট্যান্ড এলাকার অন্ধকল্যান সংস্থা মার্কেটের ভিতরে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মাহফুজুর রহমান মাফু ঢাকার জেলার নবাবগঞ্জ উপজেলার বান্দুরা গ্রামের আফসার মোল্লার ছেলে। বর্তমানে সে হেমায়েতপুর জয়নাবাড়ি এলাকার হাজী মনোয়ার হোসেনের বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করে আসছিলো।

হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- আমির হোসেন টিপু (৫৪),ফরিদ হোসেন বাবু (২৫) ও দেলোয়ার হোসেন (৫০)। তারা সবাই সাভার পৌর এলাকার রাজাশন মহল্লার বাসিন্দা। প্রত্যক্ষদর্শী ও থানা পুলিশ জানায়,  রোববার রাতে সাভার বাজার বাসষ্ট্যান্ড এলাকার অন্ধ কল্যান সংস্থা মার্কেটের নিচতলায় মালিকানা নিয়ে দ্বন্দের জেরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।

একপর্যায়ে তারা সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়লে প্রতিপক্ষের লোকজন মাহফুজুর রহমান মাফুকে বেধরক পিটিয়ে আহত করে। খবর পেয়ে সাভার মডেল থানা পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌছে মাফুকে আশংকাজনক অবস্থায় উদ্ধার করে সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে নিয়ে যায়। এসময় কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক সাভার অন্ধ কল্যান সংস্থা মার্কেটের একজন দোকান মালিক বলেন, বেশ কিছুদিন ধরে মার্কেটটি নিজেদের দখলে নেয়ার জন্য দুটি পক্ষে বিভক্ত হয়ে পড়ে। এরই মাঝে উভয়পক্ষ কয়েকবার ভাড়াটে সন্ত্রাসী নিয়ে মার্কেট দখলের জন্য মহড়া দিয়েছে। এছাড়া মালিকানার বিষয় নিয়ে তাদের মধ্যে একাধিক বৈঠকও হয়েছে। তবে সেখানে কোন সমাধান না হওয়ায় এই হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে বলে ধারানা করছেন তারা।

সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফএম সায়েদ বলেন,পূর্ব শত্রুতার জের ধরে মাহফুজুর রহমান মাফুকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় প্রাথমিকভাবে ঘটনার সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে আমির হোসেন টিপুসহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

এছাড়া বিষয়টি অধিকতর তদন্ত করে জড়িত বাকী আসামিদের গ্রেপ্তারে আমাদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। তবে নিহত মাহফুজুর রহমান একাধিক মামলার আসামি ও তালিকাভুক্ত সন্ত্রাসী ছিলো বলে জানিয়ে পুলিশ। সম্পাদনা: জেরিন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত