প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঘরে বসে পাঁচ মিনিটেই ব্যাংক হিসাব খোলার নীতিমালা জারি

মাজহারুল ইসলাম : আর্থিক খাতের গোয়েন্দা সংস্থা বাংলাদেশ ফাইন্যান্সিয়াল ইন্টেলিজেন্স ইউনিট-বিএফআইইউ এই নীতিমালা জারি করেছে। বুধবার জারি করা এ নীতিমালার আলোকে পুঁজিবাজারের বিও (বেনিফিশিয়ারি ওনার্স) হিসাবও খোলা যাবে পাঁচ মিনিটে। শুধু তাই নয়, বীমা পলিসিও খোলা যাবে এই অল্প সময়ে। সূত্র : বিডিনিউজ টোয়েন্টিফোর ডটকম

নীতিমালাটি সব ব্যাংক, বীমা, আর্থিক প্রতিষ্ঠান,স্টক ডিলার, স্টক ব্রোকার, পোর্টফোলিও ম্যানেজমেন্ট ও মার্চেন্ট ব্যাংক, সিকিউরিটিজ কাস্টডিয়ান, সম্পদ ব্যবস্থাপনা এবং বাংলাদেশ ব্যাংকের অনুমতিক্রমে ব্যবসা পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠানকে পরিপালন করতে বলা হয়েছে।

মানিলন্ডারিং ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডে অর্থায়ন প্রতিরোধে ‘ইলেকট্রনিক নো ইওর কাস্টমার (ইলেকট্রনিক কেওয়াইসি বা ই-কেওয়াইসি’ শীর্ষক এই নীতিমালাটি ২০২০ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে বাস্তবায়ন করতে প্রতিষ্ঠানগুলোকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

কেওয়াইসি এর অর্থ হলো আপনার গ্রাহককে জানুন। এতোদিন হাতে-কলমে (ম্যানুয়াল) কেওয়াইসি ফরম পূরণ করে ব্যাংক হিসবাবসহ অন্যন্য হিসাব খোলা হতো। তাতে বেশ কিছুক্ষণ সময় লাগতো। ব্যাংক বা আর্থিক প্রতিষ্ঠানে যেতে হতো। এখন ই-কেওয়াইসি এর মাধ্যমে সব সম্পন্ন হবে। আর তাতে সময় লাগবে মাত্র পাঁচ মিনিট। ঘরে বসেই এ সব করা যাবে।

এ প্রসঙ্গে বিএফআইইউ যুগ্ম পরিচালক আব্দুর রব বলেন, সহজ হলো হিসাব খোলা। ঘরে বসেও হিসাব খোলা যাবে মাত্র পাঁচটি ধাপে, পাঁচ মিনিটে। শুধু ব্যাংক হিসাব নয়, শেয়ার বাজারের বিও হিসাব এবং বীমা পলিসিও খুলতে হবে এই ই-কেওআইসি গাইডলাইন মেনে।

জানা যায়, হিসাব খোলার জন্য গ্রাহকের নাম, মা-বাবার নাম, লিঙ্গ, পেশা, মোবাইল ফোন নম্বর, ঠিকানা, মনোনীত ব্যক্তির (নমিনি) পরিচয় উল্লেখ করতে হবে। জাতীয় পরিচয়পত্রে থাকা তথ্য স্বয়ংক্রিয়ভাবে কেওয়াইসি ফরমে চলে আসবে। পরে গ্রাহকের ছবি তোলা হবে। এরপর হিসাব খোলার বিষয়ে গ্রাহককে মোবাইল ফোনে খুদে বার্তা পাঠাবে ব্যাংক। গ্রাহক বার্তা পাওয়া মানেই হিসাব খোলা সম্পন্ন। কাগজপত্র ছাড়াই পুরো কাজটি হবে অনলাইনে। সম্পাদনা : তন্নীমা আক্তার

সর্বাধিক পঠিত