প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বঞ্চিতদের মানবাধিকার রক্ষায় জনস্বার্থের মামলা সহায়ক ভূমিকা রাখছে, বললে প্রধান বিচারপতি

এস এম নূর মোহাম্মদ: প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন বলেছেন, বঞ্চিত ও পিছিয়ে পড়া জনগণের মানবাধিকার রক্ষায় জনস্বার্থের মামলা সহায়ক ভূমিকা রাখছে।মানবাধিকার বিষয়ক বিচার ব্যবস্থায় এ মামলা দেশীয় মডেল হিসেবে বিচার বিভাগকে এগিয়ে নিতে সহায়তা করে। এটি অত্যন্ত প্রশংসিত হয়েছে। তবে জনগণের অতি প্রশংসা যেন বিচারকদের প্রভাবিত না করে।আর ব্যক্তিগত অতিরঞ্জন এড়াতে হবে। এ ক্ষেত্রে বিচারিক প্রক্রিয়ার পবিত্রতা ও বিশ্বাসযোগ্যতা রক্ষা করতে হবে।

শনিবার সুপ্রিম কোর্ট মিলনায়তনে সুপ্রিম কোর্ট অনলাইন বুলেটিন (স্কব) আয়োজিত সেমিনারে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন প্রধান বিচারপতি। স্ট্যান্ডিং ইন পাবলিক ইন্টারেস্ট লিটিগেশন : অ্যান আউটলাইন শীর্ষক সেমিনারে মূল প্রবন্ধ উপস্থানপন করেন বিচারপতি মইনুল ইসলাম চৌধুরী।

প্রধান বিচারপতি বলেন, জনস্বার্থ মামলায় জনগণের মঙ্গলের জন্য আইন ও ন্যায়বিচারের মাধ্যমে বিচার বিভাগের সক্ষমতা কাজে লাগাতে হবে। জাতির সার্বিক উন্নয়নে বড় ভূমিকা রাখতে হবে। বিচারিক প্রক্রিয়ার পবিত্রতা এবং বিশ্বাসযোগ্যতা রক্ষা করতে হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

বিচারপতি শেখ হাসান আরিফ বলেন, কিছু আইনজীবী শুধু মিডিয়ার সামনে নিজেকে উপস্থাপনের জন্য জনস্বার্থে মামলা করছেন। কোনো কোনো ক্ষেত্রে পাবলিক ইন্টারেস্ট লিটিগেশন এখন পাবলিসিটি ইন্টারেস্ট লিটিগেশন হয়ে গেছে। এভাবে চলতে পারে না।

বিচারপতি ওবায়দুল হাসান বলেন, আমি যখন রিট বেঞ্চের দায়িত্বে ছিলাম, তখন একজন আইনজীবী ভারত থেকে ভেসে আসা একটি হাতি মারার ঘটনায় জনস্বার্থে রিট আবেদন করেছিলেন। আমি সেটা শুনিনি। আইনজীবীদের বুঝতে হবে, আসলে জনস্বার্থে মামলা কোনটা হবে।

বিচারপতি এ কে এম আব্দুল হাকিম বলেন, জনস্বার্থের মামলা যেন আমরা প্রকৃত পক্ষে জনগণের স্বার্থেই করি, সে বিষয়টি নিশ্চিত করতে হবে।

সর্বাধিক পঠিত