প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

টাকা-পয়সা নয়, সিন্দুক খুলে বের হলো ইয়াবা!

সুজন কৈরী : রাজধানীর পল্লবী ও শাহআলী এলাকায় রোববার রাতে পৃথক অভিযান চালিয়ে ৩২ হাজার পিস ইয়াবাসহ চার জনকে আটক করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদফতর (ডিএনসি)। আটককৃতরা হলেন- মনি ইসলাম, মুরাদ হোসেন মাসুদ, রফিকুল ইসলাম, তৌফিক হোসেন ওরফে শাওন।

ডিএনসির খিলগাঁও সার্কেলের পরিদর্শক সুমনুর রহমান বলেন, গোপন তথ্যে প্রথমে মিরপুর ৬ নম্বরের বাজার কমপ্লেক্সের সামনে অভিযান চালিয়ে প্রথমে তৌফিক হোসেনকে ৫০০ পিস ইয়াবাসহ আটক করা হয়। পরে তার দেয়া তথ্যে মিরপুর ১ নম্বরের সনি সিনেমা হলের বিপরীতে কুশিয়ারা নামক অ্যাপার্টমেন্টের ১৬ তলায় একটি ফ্ল্যাটে অভিযান চালানো হয়। এ সময় সেখান থেকে ২ হাজার পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। ফ্লাটটি আটক মনির স্বামী মো. রাজু মোল্লা ওরফে সুজনের। তিনি পলাতক রয়েছেন। মনি আটকের পর তার দেয়া তথ্যে একই ভবনের ১৪ তলার একটি ফ্লাটে অভিযান চালোনো হয়। সেখানে একটি বড় সিন্দুক পাওয়া যায়। পরে তা খুলে ২৯ হাজার ৫০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। আটক করা হয় মুরাদ ও রফিকুলকে।

সুমনুর জানান, পলাতক সুজন চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী। ইয়াবার বড় ডিলার বলে পরিচিতি রয়েছে তার। গাড়ি ব্যবসায়ী পরিচয়ে ওই অ্যাপার্টমেন্টের ১৬ তলায় একটি ফ্লাট কেনেন। সেখানে স্ত্রীকে নিয়ে থাকতেন। এছাড়া তিনি একই অ্যাপার্টমেন্টের ১৪ তলায় একটি ফ্লাট ভাড়ায় নেন। সেখানে তার সহযোগী আটক মুরাদ ও রফিকুলকে রাখতেন। এছাড়া ওই ফ্লাটে একটি বড় সিন্দুক রাখেন। তার ভেতরে দেশের সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে ইয়াবা সংগ্রহ করে রাখতেন। চাহিদামত সেখান থেকে বের করে সরবরাহ করতেন। জব্দ করা ইয়াবাগুলোও তিনি সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে সংগ্রহ করে সিন্দুকে রেখেছিলেন।

সুমনুর জানান, আটককৃতদের বিরুদ্ধে পল্লবী ও শাহআলী খানায় মাদক আইনে পৃথক মামলা দায়ের করা হয়েছে। পলাতক মনির স্বামী সুজনকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত