প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিজয় দিবসে অনুশীলনে ব্যতিক্রমী চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স

শফিক ইসলাম : কাল থেকে শুরু বঙ্গবন্ধু বিপিএলের চট্টগ্রাম পর্ব। তাই সব দলই অনুশীলনে ব্যস্ত সময় পার করছেন। আর নিজেদের মাঠে বিদেশি ক্রিকেটারদের দেখতে ভীড় ছিলো স্থানীয়দের। তবে অনুশীলন মাঠে হঠাৎই সবার নজর কেড়ে নেয় অনুশীলনে ঢুকা চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের ক্রিকেটারসহ টিম ম্যানেজমেন্ট। তাদের সবার মাথায় ছিলো বিজয় দিবসের ব্যান্ড। হাতে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা। চট্টগ্রামের ইংলিশ কোচ পল নিক্সনের মাথায় ব্যান্ড বাধার পাশাপাশি হাতে বড় একটি পতাকা। মাঠে ঢুকেই সবার উদ্দেশ্যে বললেন, ‘হ্যাপি ভিক্টরি ডে।’

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের খেলোয়াড়েরা মাঠে ঢুকে পরিবেশটাই যেন বদলে দিলেন। একে তো এটা তাদের ঘরের মাঠ, এর সঙ্গে বিজয় দিবসের ব্যঞ্জনা ছড়িয়ে মাঠে ঢুকে মাহমুদউল্লাহরা অন্যরকম এক পরিবেশই সৃষ্টি করলেন। বিপিএলে বিজয় দিবসের আনন্দ ছড়াতে গোটা দল ও জাতীয় পতাকা নিয়ে ছবিও তুলেছে চট্টগ্রাম।

চট্টগ্রামের কোচ নিক্সনের ব্যাখ্যা, ‘এটা বিজয় দিবসের উদ্যাপন। বাংলাদেশে এবারই আমার প্রথম। এটা চ্যালেঞ্জার্সের ঘরের মাঠ। আরও জয় পাব, ইনশা আল্লাহ।’ এরপরই উঠে এল ক্রিকেট প্রসঙ্গ। ঘরের মাঠে বিপিএল পর্বকে টুর্নামেন্টের গুরুত্বপূর্ণ পর্যায় বলেই মনে করছেন নিক্সন। ঘরের মাঠে সবগুলো ম্যাচই জিততে চান কোচ নিক্সন। মাথায় বিজয় দিবসের ব্যান্ড দেখিয়ে উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান নুরুল হাসান সোহান বলেন, ‘আজ ম্যাচ থাকলে তিনি এ ব্যান্ড পরেই মাঠে নেমে যেতেন। এবার বিপিএলে দেশের ক্রিকেটাররা ভালো করছে বলেই মনে করেন নুরুল হাসান।’

বিজয় দিবসের ব্যতিক্রমী উৎযাপনটা কার পরিকল্পনা, এ নিয়ে রহস্য ভাঙেননি নুরুল হাসান। বলেন, ‘এটা আসলে আমাদের সবার জন্য বড় একটা পাওনা। বিদেশিরাও কিন্তু পতাকা নিয়ে মাঠে ঢুকছে। এটা আমাদের জন্য একটা বড় অনুভূতির ব্যাপার।’

কাল জহুর আহমদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সিলেট থান্ডারের মুখোমুখি হবে চট্টগ্রাম।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত