প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রথম দফায় প্রকাশিত রাজাকার তালিকায় ৪৩ জন রাজবাড়ী জেলার

ইউসুফ মিয়া, রাজবাড়ী প্রতিনিধি: সরকারের হাতে থাকা নথির তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতে একাত্তরে রাজাকার, আল বদর, আল শামস বাহিনীর বেতনভোগী ১০ হাজার ৭৮৯ জন স্বাধীনতা বিরোধীর প্রথম তালিকা করেছে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়।

রোববার (১৫ ডিসেম্বর) মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত এক সম্মেলনে এই তালিকা প্রকাশ করেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক।

মন্ত্রী বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের হেফাজতে থাকা দালিলিক প্রমাণের ভিত্তিতে এই তালিকা প্রকাশ করা হয়েছে।তালিকাটি মন্ত্রণালয়ের ওয়েবসাইটে দেয়া হয়েছে। পর্যায়ক্রমে পুরো তালিকা প্রকাশ করা হবে।

প্রথম দফায় প্রকাশিত তালিকায় নাম এসেছে রাজবাড়ী জেলার ৪৩ জন স্বাধীনতা বিরোধীর। তাদের মধ্যে ১৭ জন রাজবাড়ী সদর উপজেলার, ১৬ জন বৃহত্তর পাংশা উপজেলার (নবগঠিত কালুখালী উপজেলাসহ), ৩ জন বালিয়াকান্দি উপজেলার এবং ৭ জন গোয়ালন্দ উপজেলার।তারা হলেন-রাজবাড়ী সদর উপজেলার নাওডুবির হোসেন খানের ছেলে আকবর আলী খান, আলাদীপুরের হযরত আলীর ছেলে রবিউল মিয়া, রফিক মিয়ার ছেলে শফি মিয়া, মধুরদিয়ার এস.এম সাঈদের ছেলে এস.এম জাকারিয়া, দিল মোহাম্মদের ছেলে মোঃ হানিফ, শরীয়তুল্লাহর ছেলে আকবর মন্ডল, খানখানাপুরের আব্দুল হাকিমের ছেলে আব্দুর রাজ্জাক, খোয়াজ মন্ডলের ছেলে মোঃ ইসমাইল, চরখানখানাপুরের বাজার আলীর ছেলে আঃ রহমান মোল্লা, গৌরিপুর রিফিউজি কলোনীর ইদ্রিস আলীর ছেলে আব্দুল জলিল, রাজবাড়ী শহরের ভাজনচালার জামান মিয়ার ছেলে মোঃ শুকুর, বটতলার ওয়াসিমুদ্দিনের ছেলে আঃ রশিদ মিয়া, ভবাণীপুরের আবেদ আলীর ছেলে মুজিবুর রহমান, মহারাজপুরের গোপাল মোল্লার ছেলে লতিফ মোল্লা, মজলিশপুরের উমেদ শেখের ছেলে আঃ সাত্তার শেখ, বাগমারার হাফিজুদ্দিনের ছেলে আব্দুল হান্নান ও মহিষবাথানের আব্দুর রহমানের ছেলে আজাহার আলী মন্ডল, পাংশা (নবগঠিত কালুখালীসহ) উপজেলার কাউখোলার ইসমাইলের ছেলে আব্দুল জব্বার মন্ডল, পাংশার আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে আব্দুল মালেক খান, ইসমাইলের ছেলে আবুল কালাম আজাদ, হজপাড়ার লাট্টা শেখের ছেলে সাইফুদ্দিন শেখ, জহুর শেখের ছেলে খোরশেদ আলী শেখ, হুদারকোটার এন্তাজ মন্ডলের ছেলে আব্দুল জলিল মন্ডল, কালিকাপুরের কেসমত আলীর ছেলে হোসেন আলী শেখ, ভাতশালার নূরুজ্জামানের ছেলে সৈয়দ শফিকুল আলম, পাকশিয়ার ইছাকের ছেলে শাহিদুল ইসলাম, মাজবাড়ীর আইনুদ্দিনের ছেলে কাজী সাইদুল ইসলাম, নূরুল হকের ছেলে কাজী সোনাউল্লাহ, তাফুলিয়ার জাকির আলী খানের ছেলে আঃ আজিম খান, বাড়াইজুড়ীর আছালুদ্দিনের ছেলে কাজী আমজাদ হোসেন, খোশবাড়ীর মহসিন মিয়ার ছেলে মোজাম্মেল মিয়া, রতনদিয়ার ইউসুফ হোসেন চৌধুরীর ছেলে নাজির হোসেন চৌধুরী ও মেগচামীর সাদেক আলী খানের ছেলে আবুল বাশার খান, বালিয়াকান্দি উপজেলার বচনপুরের হামিদ মোল্লার ছেলে আব্দুল হান্নান মোল্লা, রাজধরদীর আব্দুর রহমানের ছেলে আকবর আলী খান ও একই এলাকার (রাজধরদী) আব্দুল মজিদের ছেলে মোয়াজ্জেম হোসেন এবং গোয়ালন্দ উপজেলার গোয়ালন্দ ঘাটের আঃ জলিল বেপারীর ছেলে মোঃ সিদ্দিক, জাফর আলীর ছেলে কাজী হোসেন, কাশেম সিদ্দিকের ছেলে আলী হোসেন সিদ্দিক, চরপাঁচুরিয়ার ফৈজদ্দিনের ছেলে আফজাল সরদার, শ্যামসুন্দরপুরের মোখলেছুর রহমানের ছেলে আব্দুল ওহাব খান, খানদিয়ার আব্দুর রহমানের ছেলে মতিয়ার রহমান ও তোফদিয়ার শুকুর শেখের ছেলে আব্দুল জলিল।

সম্পাদনা: সারোয়ার জাহান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত