প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মুক্তিযুদ্ধের এত বছর পর রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ হওয়ার দায়-ভার সবার ওপরই বর্তায়, বললেন মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী

লাইজুল ইসলাম: রোববার দুপুরে মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, একটা সময় হয়তো এতটা চাহিদাও ছিলো না রাজাকারদের তালিকার।কিন্তু বর্তামনে তরুণ প্রজন্ম যেভাবে জানতে চাচ্ছে আগ্রহ প্রকাশ করেছে সেটাও একটা অন্যতম কারণ উদ্যোগ নেওয়ার। এটা আমাদের নৈতিক দ্বায়িত্ব।কিন্তু আমরা আগে পারিনি।

মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধুর সময় থেকে আমরা মাত্র ১৮ বছর বা তার বেশি দেশের ক্ষমতায়।কিন্তু দেশের ক্ষমায় সবচেয়ে বেশি ছিলো অন্যরা।দীর্ঘ ৩০ বছর। জিয়া উর রহমান, এরশাদ, খালেদা জিয়া। তাদের সময়, তারা কখনো মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করে নাই।তারা চেষ্টাও করেনাই রাজাকরদের তালিকা প্রকাশ করার, চিন্তাও করেনাই।ক্ষমতায় থেকে উদ্যোগ না নেয়ার কারনেই এতটা বিলম্ব হয়েছে।

এত দিন মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের শক্তিক্ষমতায় থাকলে হয়তো তালিকা প্রকাশ করার কাজ শেষে হয়ে যেতো। এখন সব কিছুর মধ্যে ৩০ বছরের একটি বিরাট শূণ্যস্থান সৃষ্টি হয়েছে। তবে আমরা এই কাজগুলো শেষ করতে চাই।

তিনি বলেন, শান্তি কমিটির সদস্যদের নাম ও পরিচয়ের তালিকা প্রকাশ করা হবে।তবে এটি কিছুটা সময় সাপেক্ষ বিষয়। আমরা চেষ্টা করবো শান্তি কমিটির তালিকা এই মেয়াদের মধ্যেই প্রকাশ করতে।এ বিষয়ে বেসিক কাজ গুলো শেষ করে যেতে চাই। তবে এই মূহুর্তে রাজাকারদের নিয়ে কাজ চলছে।সেটা শেষেই আমরা পিস কমিটির বিষয়ে কাজ শুরু করবো বলে জানান মুক্তিযুদ্ধমন্ত্রী।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত