প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভুয়া গ্রেপ্তারি পরোয়ানায় হয়রানির শিকার মানুষ

তন্নীমা আক্তার : একটি চক্র প্রতিপক্ষকে হয়রানি করতে এ ধরনের ভুয়া গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ডাকযোগে পাঠিয়ে দেয় সংশ্লিষ্ট মেট্রোপলিটন পুলিশ অথবা জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ে। থানায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা পৌঁছার পর আদালতের নির্দেশ অনুযায়ি পুলিশ আসামি গ্রেপ্তার করতে যায়। কারাবন্দী হওয়ার পর ওই ব্যক্তির নামে বিভিন্ন থানা ও আদালতে দায়ের হয় একাধিক মামলা। পূর্বে ভুয়া ওয়ারেন্টে গ্রেপ্তার হলেও পরবর্তীতে দায়ের করা মামলায় ওই ব্যক্তিকে মাসের পর মাস আবার বছরের পর বছর কারাগারের বন্দী জীবন কাটাতে হয়। পুলিশ সদর দপ্তরের অপরাধ শাখার সূত্র অনুযায়ি, চলতি বছর ঢাকাসহ সারাদেশে সহস্রাধিক ভুয়া গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ও মিথ্যা মামলা শনাক্ত করেছে।

এ ব্যাপারে পুলিশ সদর দপ্তরের সহকারী মহাপরিদর্শক (মিডিয়া) সোহেল রানা গণমাধ্যমকে বলেন, একটি চক্র রয়েছে যারা এ ধরনের ভুয়া গ্রেপ্তারি পরোয়ানা এবং মিথ্যা মামলা তৈরি করে প্রতিপক্ষের কাছ থেকে আর্থিক সুবিধা আদায় করে। এ ধরনের চক্রের কয়েকজন সদস্য ইতোমধ্যে পুলিশের হাতে গ্রেপ্তার হয়েছে। বিষয়টি পুলিশ সদর দপ্তর খুব গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত শুরু করেছে। সম্পাদনা : মাজহারুল ইসলাম

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত