প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

যার নির্দেশে জামিন হয়নি, তার নির্দেশেই সাক্ষাৎ বাতিল, বললেন রিজভী

শিমুল মাহমুদ: শনিবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী এ অভিযোগ করেন।তিনি বলেন, ৩১ দিন অতিবাহিত হওয়ার পরেও খালেদা জিয়ার স্বজনদেরকে তার সাথে দেখা করতে দেয়া হয়নি।বলা হয়েছে, উচ্চতর কর্তৃপক্ষের নির্দেশেই সাক্ষাৎ দেয়া হয়নি। আমরা বলতে চাই-উচ্চতর কর্তৃপক্ষ কে ? কত উচ্চতায় তিনি অবস্থান করেন ?

রিজভী বলেন, জেল কর্তৃপক্ষ না জানলেও জনগণ তা ভালভাবেই জানে যে, জেল কর্তৃপক্ষের প্রভূরাই উচ্চতর কর্তৃপক্ষ। গত বৃহস্পতিবার আদালতকে দিয়ে যার নির্দেশে দেশনেত্রীর জামিন আবেদন খারিজ হয়েছে, সেই উচ্চতর কর্তৃপক্ষের নির্দেশেই সাক্ষাৎ করতে পারলেন না।

এদিকে শনিবার বিকেলে খালেদা জিয়ার প্রেস উইংয়ের সদস্য শামসুদ্দিন দিদার জানান, শনিবার তার পরিবারের সদস্যদের সাক্ষাতের জন্য অনুমতি ছিল। বেলা ২টার সময় অনুমতি বাতিলের কথা জানানো হয়েছে। আগামী ১৬ ডিসেম্বর সোমবার বেলা ৩ টায় আবারো অনুমতি দিয়েছে কারাকর্তৃপক্ষ।

রুহুল কবির রিজভী আরো বলেন, স্বজনদেরকে সাক্ষাৎ করতে না দিয়ে বন্দীর অধিকারটুকুও ক্ষুন্ন করা হয়েছে। যেখানে একজন সাধারণ বন্দীর সাথে সাত দিন পরপর দেখা করার সুযোগ থাকে। আমরা আশঙ্কা করছি খালেদা জিয়া গুরুতর অসুস্থ। সেই কারণে আসল রহস্য ফাঁস হওয়ার ভয়ে বেগম জিয়ার পরিবারের সদস্যদেরকে দেখা করার সুযোগ দেয়া হচ্ছে না। বেগম জিয়ার প্রতি শেখ হাসিনার আচরণ দেশ-কাল-সভ্যতার পক্ষে কলঙ্কের।

সর্বাধিক পঠিত