প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বুদ্ধিজীবী হত্যাকাণ্ডের কুশীলবরা ধরাছোঁয়ার বাইরে কেন, প্রশ্ন জামায়াতের

শিমুল মাহমুদ: শনিবার শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস উপলক্ষে আয়োজিত এক আলোচনায় সভায় ঢাকা মহানগর উত্তরের জামায়াতে ইসলামীর আমির মো. সেলিম উদ্দিন এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, জাতি হিসেবে যারা আমাদের মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে দিতে চায়নি, তারাই এই নির্মম ও নিষ্ঠুর হত্যাকাণ্ডের নেপথ্যের অপশক্তি।কিন্তু অতীব পরিতাপের বিষয় যে, বিজয়ের প্রায় পাঁচ দশক অতিক্রান্ত হলেও এই হত্যাকাণ্ডের কুশীলবরা আজও ধরা-ছোঁয়ার বাইরে রয়ে গেছে।

দলের নির্বাহী কমিটির এই সদস্য বলেন, স্বাধীন দেশে বিশিষ্ট বুদ্ধিজীবী, সাংবাদিক ও কথা সাহিত্যিক শহীদুল্লাহ কায়সারের ভাই জহির রায়হানের অন্তর্ধান এখনও রহস্যাবৃতই রয়ে গেছে।জহির রায়হান অনেক ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী ছিলেন বলেই রহস্যপ্রকাশ হওয়ার আগেই তাকে অপহরণ ও হত্যা করা হয়েছে।তার কাছে মুক্তিযুদ্ধের বিভিন্ন দলিল-দস্তাবেজ, ডকুমেন্টারি-প্রামাণ্যচিত্র সংরক্ষিত থাকার কারণেই তাকে নির্মম পরিণতি বরণ করতে হয়েছিল।

সেলিম উদ্দিনের দাবি, এসব তথ্য-উপাত্ত প্রকাশ পেলে যাদের ‘থলের বেড়াল’ বেরিয়ে আসার আশঙ্কা ছিল, তারাই এসব হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে সরাসরি জড়িত ছিল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত