প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ব্রিটেন নির্বাচন: টিউলিপ সিদ্দিক, রুপা হক, রুশনারা আলী ও আফসানা বেগম নির্বাচিত

জান্নাতুল ফেরদৌসী: ব্রিটেনের সাধারণ নির্বাচনে তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নাতনি টিউলিপ রেজওয়ান সিদ্দিক ও বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত রুপা হক। চতুর্থবারের মতো নির্বাচিত হয়েছেন রুশনারা আলী এবং প্রথমবারের মতো আফসানা বেগম।  শুক্রবার (১৩ ডিসেম্বর) এ তথ্য জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম। নির্বাচনে জয় লাভ করেছে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের দল কনজারভেটিভ পার্টি। বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) এ নির্বাচনের ভোট গ্রহণ সম্পন্ন হয়।

টিউলিপ রেজওয়ান সিদ্দিক: হ্যাম্পস্টেড অ্যান্ড কিলবার্ন এলাকা থেকে জয় পেয়েছেন টিউলিপ সিদ্দিক। তিনি ২৮,০৮০ ভোট পেয়েছেন। অন্যদিকে কনসারভেটিভ পার্টির জনি লাক পেয়েছেন ১৩৮৯২ ভোট। টিউলিপ সিদ্দিক জয়লাভ করলেও গতবারের চেয়ে তিনি ১০ শতাংশ ভোট কম পেয়েছেন। অন্যদিকে তার প্রতিন্দ্বন্দ্বী কনসারভেটিভ প্রার্থীও গতবারের চেয়ে আট শতাংশ ভোট কম পেয়েছেন।

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছোট বোন শেখ রেহানার মেয়ে টিউলিপ। তিনি উত্তর-পশ্চিম লন্ডনের হ্যামস্টেড অ্যান্ড কিলবার্ন আসন থেকে লড়ে টানা তৃতীয়বারের মতো জয় লাভ করলেন।

এর আগে ২০১৫ সালে লেবার দলের মনোনয়ন পেয়ে প্রথমবারের মতো ব্রিটিশ এমপি নির্বাচিত জন টিউলিপ। ২০১৭ সালে পুনর্নির্বাচিত হয়ে দ্বিতীয়বারের মতো তিনি এই আসনের এমপি হন।

রুপা হক:  লন্ডনের আরেকটি আসন ইলিং সেন্ট্রাল অ্যান্ড অ্যাকটন থেকে জয়লাভ করেছেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত রূপা হক। তার প্রাপ্ত ভোট হচ্ছে ২৮,১৩২, আর কনসারভেটিভ প্রার্থী জুলিয়ান গ্যালান্ট ১৪,৮৩২ ভোট পেয়েছেন। এক্ষেত্রে উভয় প্রার্থীর প্রাপ্ত ভোট গতবারের কমেছে। রূপা হকের ভোট কমেছে ৮.৪ শতাংশ এবং কনসারভেটিভ প্রার্থীর ভোট কমেছে ৭.৭ শতাংশ। ২০১৫ সালে প্রথমবারের মতো নির্বাচনে অংশ নিয়ে জয়লাভ করেন রূপা হক।

রুপা হকের পৈতৃক নিবাস পাবনা জেলায়। ১৯৭২ সালে লন্ডনের ইলিংয়ে জন্ম নেওয়া এই বাংলাদেশি বংশোদ্ভুত অধ্যাপনার পাশাপাশি লেখালেখির সঙ্গেও জড়িত রয়েছেন। তার লেখনি তাকে এনে দিয়েছে খ্যাতি। এছাড়াও ব্রিটেনের শীর্ষস্থানীয় দৈনিক গার্ডিয়ান, সানডে ও অবজারভার পত্রিকায় নিয়মিত কলাম লেখেন তিনি।

রুশনারা আলী: বেথনাল গ্রিন অ্যান্ড বো আসন থেকে জয়লাভ করেছেন রুশনারা আলী। তিনি পেয়েছেন ৪৪,০৫২ ভোট। অন্যদিকে তার প্রতিন্দ্বন্দ্বী কনসারভেটিভ প্রার্থী নিকোলাস স্টোভোল্ড পেয়েছেন ৬৫২৮ ভোট। প্রদত্ত ভোটের প্রায় ৭৩ শতাংশ পেয়েছেন রুশনারা আলী। তিনি ২০১০ সাল থেকে ওই এলাকা থেকে নির্বাচিত এমপি। তার পৈতৃক নিবাস সিলেট জেলায়।

আফসানা বেগম: আরেক বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত আফসানা বেগম লেবার পার্টির প্রার্থী হিসেবে জয়লাভ করেছেন পপলার অ্যান্ড লাইমহাউজ আসন থেকে। তিনি পেয়েছেন ৩৮,৬৬০ ভোট এবং কনসারভেটিভ প্রার্থী পেয়েছেন ৯৭৫৬ ভোট। যদিও উভয় প্রার্থীর ভোট গতবারের চেয়ে চার শতাংশ কমেছে।

এবারের নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন ৯ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থী। যাদের মধ্যে ৭ জনই নারী। বিরোধী লেবার পার্টি থেকে লড়েছেন সর্বোচ্চ ৭ বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত প্রার্থী। লিবারেল ডেমোক্র্যাট ও কনজারভেটিভ পার্টি থেকে এক জন করে এই নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন। সূত্র: বিবিসি বাংলা

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত