প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চিলির ‘ধর্ষণ-বিরোধী’ গান এখন বিশ্বব্যাপী নারীদের প্রতিবাদের ভাষা

ইয়াসিন আরাফাত : সারা বিশ্বে নারী নির্যাতনের ছবিটা যেন একই রকম। কোথাও ধর্ষণ করে খুন, তো কোথাও নাচ থামানোর জন্য নতর্কীকে গুলি কিংবা হত্যার পর আত্মহত্যা বলে প্রহসন করা হয়। বিগত কয়েকদিন ধরেই একের পর এক নারী নির্যাতনের ঘটনায় স্তম্ভিত পুরো বিশ্ব। দ্যা গার্ডিয়ান

নারীদের প্রতি এমন অত্যচারের দৃশ্য ফুটে উঠেছে নারীর ক্ষমতায়নের স্বপ্ন দেখা লাতিন আমেরিকার দেশ চিলিতেও। ওই দেশেও নারীদের ওপর নেমে আসা একের পর এক নির্যাতন ও আক্রমণের প্রতিবাদে এবার গর্জে উঠেছে সে দেশের নারীরা। সেখানকার মহিলারা রাস্তায় নেমে সুর তুললেন লিঙ্গ বৈষম্যকারীদের বিরুদ্ধে। প্রতিবাদের অংশ হিসাবে তাদের গাওয়া ‘তুমিই ধর্ষক’ গানটি এখন ছড়িয়ে পড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ার বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে। যৌন প্রহিংসার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতে এই গানের সুরেই ভরসা রাখছে গোটাবিশ্ব। ইতোমধ্যে এই গানের সুরেই সুর ধরেছেন প্যারিস, বার্সেলোনা, মেক্সিকো সিটির নারীবাদীরা।

চিলির রাজধানী শহর সান্তিয়াগোর ন্যাশনাল স্টেডিয়ামের বাইরে গত বুধবার জড়ো হয়েছিলেন হাজারো নারী। ৮ থেকে ৮০ বয়সী মহিলাদের সেই জমায়েতে সকলেই পরেছিলেন কালো রঙের পোশাক। সঙ্গে ছিলো লাল রঙের স্কার্ফ। কাপড়ের টুকরো দিয়ে নিজেদের চোখও বেঁধে নিয়েছিলেন সকলেই। এ ভাবেই তারা এক সঙ্গে গেয়ে উঠলেন, ‘দোউজ ফল্ট ইজ নট উইথ মি, নর হোয়্যার আই ওয়াজ, নর হাউ আই ড্রেসড…’ বাংলায় যার অর্থ দাঁড়ায় ‘আমি যেখানেই থাকি, যে পোশাক পরেই থাকি, সেটা আমার ভুল নয়।’ হাজার হাজার গলা থেকে ভেসে আসা এই গানের সুরেই

ধর্ষকদের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন উপস্থিত নারীরা। সেই গানের কথায় বাদ যায়নি পুলিশ, অত্যাচারী রাষ্ট্র, প্রেসিডেন্ট ও বিচারকরাও। গানে তাদেরকেও ধর্ষক বলে আক্ষায়িত করেছেন নারীবাদীরা। সেখান থেকে সারা বিশ্বে প্রত্যেকের কন্ঠের এই গান যেন প্রতীক হয়ে উঠেছে সারা বিশ্বে নারী নির্যাতনের প্রতিবাদের স্বর হিসাবে।

‘ধর্ষকদের বিরুদ্ধে এই প্রতিবাদের সূত্রপাত হয়েছিলো গত ২০ নভেম্বর। লাস তেতিস নামের এক নারীবাদী সংগঠন চিলির শহর ভ্যালপারাইসোতে জড়ো হয়েছিলেন। সেখানেই গাওয়া হয়েছিলো ‘তুমিই ধর্ষক’ গানটি। তার পরই যৌন নির্যাতনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের মূল সুর হয়ে ওঠে এই গান। সম্পাদনা : মাজহারুল ইসলাম

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত