প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মিরসরাইয়ে গবাদিপশুর নতুন রোগ লাম্পি স্কিন, আতঙ্কে খামারীরা

নুরুল আলম, মিরসরাই: মিরসরাইয়ে নিয়ন্ত্রণে আসছে না গবাদিপশুর ভাইরাস জনিত রোগ লাম্পি স্কিন ডিজিজ।এই রোগে উপজেলায় প্রায় ৫ হাজার গবাদিপশু আক্রান্ত হয়েছে।লাম্পি স্কিন ডিজিজ রোগে উপজেলাতে ৮-১০ টি গরু মারা গেছে।

ভাইরাস জনিত রোগে আক্রান্ত ৪ হাজার গরুকে এ্যান্টি এলার্জিক ইনজেকশন দেওয়া হয়েছে উপজেলা প্রাণী সম্পদ কার্যালয় থেকে।লাখ লাখ টাকা পুঁজি বিনিয়োগ করে গবাদিপশু পালনকারি খামারিদের লাম্পি স্কিন ডিজিজ মহামারী রুপ লাভ করায় উদ্বেগ এবং আতংকে দিন কাটছে। এসব লাম্পি স্কিন আক্রান্ত গরুর মাংশ ও গাবীর দুধ বাজারে বিক্রি হওয়ায় মানবদেহে ক্ষতিকর হবে কিনা এ ব্যাপারে সরকারি নির্দেশনা না থাকায় সাধারন মানুষের মাঝেও আতংক দেখা দিয়েছে। উপজেলা প্রাণী সম্পদ অফিস থেকে লাম্পি স্কিন রোগে আক্রান্ত গবাদি পশুর সংখ্যা কমে নিয়ন্ত্রনে আসার কথা বলা হলেও খামারিদের ধারনা আরো নতুন নতুন গবাদি পশু আক্রান্ত হয়ে সংখ্যা বাড়ছে।

জানা গেছে, উপজেলার ১৬টি ইউনিয়ন ও ২টি পৌরসভার বিভিন্ন গ্রামে গবাদি পশুর মাঝে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। এই রোগে আক্রান্ত গবাদি পশুর শরীরে প্রথমে মাংস গুটি গুটি করে ফুলে উঠে। পরবর্তীতে সেখানে ক্ষত সৃষ্টি হয়। যেখানে আস্তে আস্তে পঁচন ধরতে শুরু করে। চামড়ায় গুটি ছাড়াও গলা ফুলে যাওয়ার পাশাপাশি খাবার কম খাওয়া এবং পা ফুলে যাচ্ছে অনেক গরুর। মশার মাধ্যমে এই রোগটি ছড়াচ্ছে বলে জানা গেছে। মশা যেখানে কামড় দিচ্ছে সেখানে গুটি গুটি আকারে ফুলে যাচ্ছে। এই রোগটি বাংলাদেশে এবারই প্রথম বলে জানা গেছে। উপজেলার দুর্গাপুর করেরহাট, ওচমানপুর ইউনিনের ভাইরাস জনিত লাম্পি স্কিন ডিজিজ আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা সব চেয়ে বেশি।

উপজেলার মধ্যম মঘাদিয়া এলাকার আবুল হাশেম বলেন, ৩ মাস পূর্বে তার ৮ মাস বয়সী বাছুরে শরীরে প্রথমে কয়েকটি চামড়া ফুলে গুটি (বসন্ত) উঠে। পরবর্তীতে তা পুরো শরীরে ছড়িয়ে পড়ে। গুটিগুলোতে কিছুদিন পর ঘাঁ দেখা দেয়। স্থানীয় চিকিৎসকের মাধ্যমে চিকিৎসা করলে কিছুটা কমে যায়। কিন্তু এখনো পুরোপুরি বাছুরটি সুস্থ হয়নি । একই গ্রামে লাম্পি স্কিন রোগে আক্রান্ত আরো গরু রয়েছে। ভালো হওয়ার লক্ষন দেখা যাচ্ছেনা।
দক্ষিণ গোভনীয়া এলাকার মোঃ নুর উদ্দিন বলেন, আমার একটি বাছুরের গলা ফুলে যায়। যেখানে পানি জমে লালচে ধরনের ক্ষত হয়ে যাচ্ছে । এতে করে গরুর খাওয়া কমে গেছে।

গোভনীয়া গ্রামের শফিউল আলম বলেন, ৭দিন আগে বাছুরের কানে ক্ষত দেখে মশার কামড়ে গুটি দেখা দিয়েছে মনে হলেও এখন বাড়ছে । পরবর্তীতে সেখানে ক্ষত সৃষ্টি হয়। যেটি ভেতরের দিকে মাংস পচে যাচ্ছে। উপজেলা প্রাণী সম্পদ কার্যালয় থেকে ওষুধ খাওয়ানোর পরও ক্ষত শুকাচ্ছে না। পাশ্ববর্তীচ্ছ গ্রামেও একি রোগে আক্রান্ত গবাদি পশুর সংখ্যা কম নয়।

উপজেলা প্রাণী সম্পদ অফিস সূত্রে জানা গেছে, গবাদিপুশর ভাইরাস জনিত রোগ লাম্পি স্কিন ডিজিজ মোকাবেলায় ন্যাশনাল এগ্রিকালচারাল টেকনোলজি প্রোগ্রাম (এনএটিপি) ফেজ-২ ও প্রাণী সম্পদ অধিদপ্তরের প্রজেক্ট ইমপ্লিমেন্টশন ইউনিট (পিআইইডি) এর আওতায় ২০১৯-২০ অর্থ বছরে ২ হাজার ৬০ জন কৃষকের প্রায় ৪ হাজার গবাদি পশুর বিনামূল্যে চিকিৎসা, ২ হাজার ৫’শ সুস্থ গবাদি পশুকে টীকা প্রদান ও ৭ হাজার ২’শ গবাদি পশুকে কৃমির ওষুধ খাওয়ানোর পাশাপাশি প্রতিটি ইউনিয়নে কৃষকদের মাঝে লাম্পি স্কিন ডিডিজ মোকাবেলায় সচেতনতা সৃষ্টির উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

বাংলাদেশ ডেইরি ফার্মারস এসোসিয়েশন, মিরসরাই উপজেলা সভাপতি,ফিরোজা এগ্রো কমপ্লেক্স এর স্বত্তাধীকারি মোঃ হেদায়েত উল্লাহ প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টিআকর্ষন কওে বলেন, লম্পি স্কিন ডিজিজ ভয়াবহ মহামারীতে রূপ নিয়েছে। কিন্তু সরকারের পশুসমাপদ মন্ত্রনালয়ের এখনো তেমন কোনো উদ্যোগ নেই। সমগ্র দেশের প্রান্তিক গবাদিপশু খামারিরা নিঃস্ব হতে চলেছে। তাই সরকারকে দ্রæত কৃষকদের বাঁচাতে ও গবাদিপশু রক্ষার্থে ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে । প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীদের আরো বেশি বেশি সেবা প্রদান করতে হবে। উদ্বেগের বিষয় যে, লাম্পি স্কিন ডিজিজ আক্রান্ত গরুর মাংস কিংবা গাভী থেকে সংগ্রহকৃত দুধ- মাংস খেলে মানুষের শরীরে লাম্পি স্কিন ডিজিজ ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা আছে কিনা আতংকিত মানুষকে সুনিদ্দিষ্ট করে জনস্বার্থে সরকানিরি ভাবে জানাতে হবে।

উপজেলা প্রাণী সম্পদ কর্মকর্তা ডাঃ শ্যামল চন্দ্র পোদ্দার বলেন, গবাদিপশুর ভাইরাস জনিত রোগ লাম্পি স্কিন ডিজিজ মোকাবেলায় উপজেলায় ১৭ সদস্য বিশিষ্ট ৪টি ভেটেরিনারি মেডিক্যাল টীম গবাদি পশুর চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছে। ইতমধ্যে উপজেলা সদরসহ ও বিভিন্ন ইউনিয়নে খামার মালিকদের নিয়ে সচেতনতামূলক সভা সেমিনার করা হয়েছে। আমরা ৪ হাজার গবাদি পশুকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা দিয়েছি। সরকারি ভাবে সরবরাহকৃত ভেকসিন শেষ হতে যাচ্ছে। লাম্পি স্কিন ডিজিজ রোগ ক্রমান্বয়ে নিয়ন্ত্রণে আসছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত