প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নিত্যপণ্যের দাম কমেনি, বিপাকে ক্রেতারা

লাইজুল ইসলাম : শুক্রবার রাজধানীর কাঁচা বাজার গুলো ঘুরে দেখা গেছে শীতকালীন সবজির সমাহার বেশি। আর দামও আগের মতোই। সপ্তাহের ব্যবধানে দাম তেমন না বাড়লেও আগের চড়া দামেই বিক্রি হতে দেখা গেছে বিভিন্ন ধরনের সবিজ। তবে ব্যতিক্রম রয়েছে আলু ও কাঁচা মরিচ। বাজার ও প্রকারভেদে মরিচের দাম বেড়েছে কেজি প্রতি ০৫ থেকে ১০ টাকা। আর আলুর বেড়েছে পাঁচ থেকে ৫ থেকে টাকা।

মগবাজার, নিউমার্কেট বাজার ঘুরে এ চিত্র পাওয়া যায়। খুচরা বাজারে শীতকালীন সবজি বিক্রি হচ্ছে কেজি প্রতি শিম (কালো)৫৫ থেকে ৬০ টাকা, ৪০ থেকে ৫০ টাকায়, গাজর ৬০ টাকায়, পটল ৫০ থেকে ৬০ টাকায়, ঝিঙা-ধুন্দল ৬০ থেকে ৭০ টাকায়, করলা ৫০ থেকে ৬০ টাকায়, উস্তা ৭০ থেকে ৮০ টাকায়, কাকরোল ৫০ থেকে ৬০ টাকায়, ঢেঁড়স ৫০ থেকে ৬০ টাকায়, পেঁপে ২৫ থেকে ৪০ টাকায়, কচুর ছড়া ৫০ থেকে ৬০ টাকায়, কচুর লতি ৬০ থেকে ৮০ টাকায়, বেগুণ ( সাদা ও লাল) ৫০ টাকা, প্রতি পিছ বাঁধাকপি ৪০ টাকা, পেঁপে পিছ ৩০ টাকা, বরবটির কেজি ৭০ টাকা, পেঁয়াজের কালি কেজি ৮০ টাকা, লাউয়ের পিছ ৫০ টাকা, টমেটোর কেজি ১০০ টাকা, মিষ্টি কুমড়া ১ পিছ (ছোট) ৫০ টাকা, ফুলকপি ১ পিছ ৫০ টাকা, মরিচের কেজি ৮০ টাকা, মুলা ৪০ টাকা, রসুন চায়না ১৫০ টাকা, দেশি রসুন ১৮০ টাকা, আদা চায়না ১৬০ টাকা, দেশি আদা ১২০ টাকা ও নতুন আলু কেজিতে ৩৫ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। লাল শাক ১ আঁটি ১০ টাকা, পুঁইশাক ১ আঁটি ২০ টাকা।
বাজারে নতুন আলু এলেও দাম কমেনি মোটেও। উল্টো কেজি প্রতি পাঁচ থেকে ১০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। বাজারে পুরাতন আলু বিক্রি হচ্ছে ৩৫ থেকে ৪০ টাকা করে। নতুন আলু (আকারভেদে) ৮০ থেকে ১০০ টাকা কেজি দরে।

দাম বেড়েছে মাছের। মাছভেদে কেজি প্রতি ১০ থেকে ১০০ টাকা পর্যন্ত বাড়তি দাম রাখা হচ্ছে। এছাড়া, বাজারে মুরগি ও মাংসের দাম অপরিবর্তিত আছে। কারওয়ান বাজরেও একই অবস্থা। আগের দামেই বিক্রি হতে দেখা গেছে চাল, ডাল, চিনিসহ অন্যান্য পণ্য।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত