প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সাংবাদিক সংগঠনগুলোর নির্বাচন প্যানেলভিত্তিক করতে দেয়া যাবে না

 

আমান উদ দৌলা : কাজী আবদুল হান্নান লিখেছেন, সাংবাদিক ইউনিয়ন ভেঙেছে রাজনৈতিক দলাদলির প্যানেলভিত্তিক নির্বাচনের কারণে। প্রেসক্লাবের সদস্য করা হয় না রাজনৈতিক দলাদলির সুবিধাজনক অবস্থান ক্ষুণহওয়ার আশঙ্কায়। এই দুই থেকে রিপোর্টারদের রক্ষা করে একটি ঐক্যের প্লাটফর্ম হিসেবে সংগঠনকে দাঁড় করাতে হলে করণীয় কী? আবু মুসা হাসান, আমান উদ দৌলা এবং আমি গলদঘর্ম হয়ে সিদ্ধান্তে পৌঁছাই প্যানেলভিত্তিক নির্বাচনের বাধা গঠনতন্ত্রেই রাখতে হবে। অর্থাৎ এর নির্বাচন প্যানেলভিত্তিক করতে দেয়া যাবে না। প্রথম নির্বাচিত কমিটি বিনাপ্রতিদন্দ্বিতায় সভাপতির পদে আসা আহ্বায়কের সঙ্গে একমত হয়ে সংগঠনকে ঐক্যের প্রতীক হিসেবে গড়ে তুলতে সচেষ্ট ছিলো।

যার সুফল এতোদিন এই সংগঠন ভোগ করেছে। দলীয় মতপথ যাই থাক না কেন যতের সঙ্গে ডিআরইউ নির্বাচনে তার ছাপ যাতে না পড়ে সেদিকে সবাই দৃষ্টি রেখেছে। কিন্তু এবার গঠনতন্ত্রের সেই লক্ষ্যকে পদদলিত হতে দেখে বুঝতে পারছি দলীয় রাজনীতির রাহু শেষ পর্যন্ত এই সংগঠনকে প্রকাশ্যেই গ্রাস করছে। প্রথম নির্বাচনে এর প্রতিষ্ঠাতাদের প্রায় সবাই ব্যক্তিগতভাবে পরাজিত হলেও তাদের সদিচ্ছাকে রিপোর্টাররা মর্যাদা দিয়েছিলো। রাজনৈতিক লেজুড়বৃত্তির প্রতিনিধিত্বকারী ইউনিয়ন নেতাদের ভ্রƒকুটিকে উপেক্ষা করে তাই এই সংগঠন পূর্ণ যৌবনে শৌর্যশালী। কিন্তু যা ছিলো এর চালিকাশক্তি সেই রাজনৈতিক মতপার্থক্যের ঊর্ধ্বে থাকার মন্ত্রটি এবার যখন দেখছি অকার্যকর হয়ে গেলো, তখন স্পষ্ট হয়ে গেলো চূড়ান্তভাবেই আমরা হেরে গেলাম। আমার দৃষ্টিভঙ্গি হচ্ছে আমরা আবার উঠে দাঁড়বো। ‘চূড়ান্তভাবে’ কথাটা আক্ষেপ থেকে বলা হয়েছে হয়তো। আর সব কথা আমি সমর্থন করছি।

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত