প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মীরার তারুণ্য তাকে উজ্জীবিত করে, সজীব রাখে বললেন শহীদ কাপুর

 

বিনোদন ডেস্ক: মীরা এবং শহীদের মধ্যে বয়সের পার্থক্য ১৪ বছর। কিন্তু বলিউডের এই তারকা জুটি প্রমাণ করেছেন একেবারে ভিন্ন দুটি মানুষ মিলে এক ছাদের নিচে দুটি সন্তান নিয়ে চমৎকার একটা সংসার করা যায়।

মীরা রাজপুত শোবিজ জগতের কেউ নন। শহীদ কাপুরের সঙ্গে বিয়ের পরও ইংরেজি সাহিত্যে পড়া মীরা স্পষ্ট জানিয়েছেন, বলিউড তাকে টানে না। সেই জগতে পা রাখার কোনো ইচ্ছা তার নেই। তিনি এটা শহীদ কাপুরের সঙ্গে বিয়ের প্রথম দিনই বলেছিলেন। সম্প্রতি হিন্দুস্তান টাইমসকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে আবারও এসেছে পুরোনো কথার পুনরাবৃত্তি।

মীরা রাজপুত বলেছেন, আমি শহীদের সঙ্গে বিয়ের প্রথম দিন থেকেই দ্বিধাহীন ছিলাম। শহীদ কাপুর তখন বলেছেন,আমি প্রথমবার যখন নিজেদের একসঙ্গে দেখলাম আয়নায় সেই মুহূর্তে আমার মনে হয়েছিল মীরা একটা আলাদা সত্তা। আমার জগৎ নিয়ে ওর কোনো ধারণাই নেই।
আমার খুব অদ্ভুত লাগল যখন দেখলাম সবার সঙ্গে সুন্দর মিলেমিশে থাকার জন্য মীরার নিজেকে এতটুকু বদলাতে হয়নি। ও যেমন তেমনভাবেই কোনো আলাদা প্রয়াস ছাড়াই সবার সঙ্গে কী সহজে মানিয়ে নিল। আমি সব সময় জানতাম আমার সঙ্গে থেকে ও পুরোপুরি ওর সত্তাকে বিকশিত করতে পারবে।

এরপর স্ত্রী আর ইন্ডাস্ট্রি থেকে শহীদ কাপুরের বন্ধুদের সঙ্গে শহীদ কাপুর আড্ডা দিয়েছেন, ঘুরেছেন, আর অবাক হয়ে দেখেছেন, সবার সঙ্গে মীরা রাজপুত কী সহজে মানিয়ে নিয়েছেন। এখন শহীদ কাপুর জানেন, কাছের বন্ধু হওয়ার জন্য তারকাজগতের মানুষ হওয়ার দরকার নেই।
শহীদ কাপুর আরও বলেন, আমি একেবারে প্রথম দিকে একটু চিন্তিত ছিলাম। ও কি একজন বলিউড তারকার জীবনসঙ্গী হওয়ার চাপটা সামলে নিতে পারবে? পরে দেখি দিব্যি মানিয়ে নিয়েছে। কে ওর সম্পর্কে কী বলল ট্রল করল সেগুলো ওকে ভাবায় না। সব পড়ে শুনেদেখে, জেনেও ও ওর মতো নিজের জগৎ নিয়ে থাকতে পারে। নিজের কাজে মন দিতে পারে। কোনো অসুবিধা হয় না। এমনকি একজন পেশাদার হিসেবে আমি যতটা আক্রান্ত হই ওকে ততটাও স্পর্শ করতে পারে না।

পদ্মাবত আর কবির সিং তারকাকে এবার বড় পর্দায় দেখা যাবে জার্সি ছবিতে। আর এখানে তার সঙ্গে পর্দা ভাগ করবেন সুপার থার্টি খ্যাত ম্রুণাল ঠাকুরকে। এটা ২০১৯ সালের একই নামের তেলেগু ব্লকবাস্টার ছবির হিন্দি রিমেক। সম্পাদনা: আইনুন নিশাত

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত