প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পশ্চিম তীরের ইসরায়েলি বসতিগুলো অবৈধ নয়, বলছে যুক্তরাষ্ট্র

ইয়াসিন আরাফাত : পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি বসতি স্থাপনের বিষয়ে নিজেদের অবস্থান পরিবর্তন করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। এর আগে এই অঞ্চলে বসতি স্থাপন আনর্জাতিক আইনে সঙ্গতিপূর্ন নয় বলে ১৯৭৮ সালে ঘোষনা দিয়েছিলো মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর। এই নীতি পরিবর্তন করার পদক্ষেপকে স্বাগত জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু । বিবিসি

বিশেষজ্ঞদের মতে, আন্তর্জাতিক আইন ভেঙে ঘোষণাটি দেওয়ায় ট্রাম্প প্রশাসন যে ইসরায়েলপন্থী তা সুস্পষ্ট ভাবে প্রকাশ পেয়েছে। এর ফলে যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে ফিলিস্তিনিদের বিরাজমান উত্তেজনা আরও বাড়িয়ে তুলবে। পাশাপাশি ট্রাম্প প্রশাসন সঙ্গে ইউরোপ এবং মার্কিন মিত্রদের মধ্যে বিভাজনকে আরও প্রশস্ত করার সম্ভাবনা রয়েছে ।
এ বিষয়ে মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও সাংবাদিকদের জানান, আইনগত সকল বিতর্ক গভীর ভাবে পর্যালোচনা করার পর, যুক্তরাষ্ট্র এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছে। তিনি জানান, “পশ্চিম তীরে ইসরায়েলি বেসামরিক বসতি স্থাপনের বিষয়টি আন্তর্জাতিক আইনের সাথে অসঙ্গতিপূর্ণ নয়”।

পম্পেও আরও বলেন, পশ্চিম তীরে বেসামরিক বসতি স্থাপনের কথা আন্তর্জাতিক আইনের সাথে সঙ্গতিপূর্ণ নয় বলে মার্কিন প্রশাসন যে মন্তব্য করেছিলো তা দুই দেশের মধ্যে শান্তি প্রতিষ্ঠা বাধাগ্রস্ত করেছে।

এ বিষয়ে প্রধান ফিলিস্তিনি মধ্যস্থতাকারী সায়েব এরকাত বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের এই সিদ্ধান্তটি “বিশ্ব স্থিতিশীলতা, সুরক্ষা এবং শান্তি” এর পক্ষে ঝুঁকিপূর্ণ। তাদের এই সিদ্ধান্ত আন্তর্জাতিক আইনকে অমর্যাদা করার সমান।
সম্পাদনা : সালেহ্ বিপ্লব

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত