প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আরামকো’র আইপিও মূল্য প্রায় পৌণে দুই লাখ কোটি ডলার

রাশিদ রিয়াজ : দেড় শতাংশ শেয়ার ছেড়ে আড়াই হাজার কোটি ডলার পুঁজি সংগ্রহের উদ্যোগ বিশে^র সবচেয়ে বড় তেল কোম্পানি আরামকো। সৌদি এই কোম্পানির আইপিও এশিয়া, ইউরোপ, আফ্রিকা ছাড়াও পশ্চিমা দেশগুলোর বিনিয়োগকারীদের যথেষ্ট নজর কাড়বে বলে আশা করছেন ক্রাউন প্রিন্স বিন সালমান। সৌদি অর্থনীতিকে তেল নির্ভরতা থেকে বের করে আনতে ২০৩০ ভিশনের অংশ হিসেবে যেসব ধারাবাহিক সংস্কার কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে তার মধ্যে সবচেয়ে বড় উদ্যোগ এটি। এজন্যে চূড়ান্তভাবে প্রসপেক্টাস প্রকাশ করে আরামকোর তরফ থেকে বলা হচ্ছে বিন সালমান আশা করছেন আইপিও বাজারে ছাড়ার সাথে সাথে তা অনায়াসে ২ লাখ কোটি ডলারের পুঁজি সংগ্রহ করবে। এজন্যে দেড় শতাংশ অংশীদারিত্ব তারা শেয়ারবাজারে ছাড়বেন যার বাজার মূল্য অন্তত ২ হাজার ৪শ কোটি ডলার। আরামকোর প্রতিটি শেয়ারপত্র মূল্য পড়বে ৮ থেকে সাড়ে ৮ ডলার। এরাবিয়ান বিজনেস

দীর্ঘদিন ধরেই আরামকো’র শেয়ার আন্তর্জাতিক শেয়ারবাজারে ছাড়ার ব্যাপারে প্রক্রিয়া চলছে। ২০১৪ সালে চীনা খুচরা ব্যবসা প্রতিষ্ঠান আলিবাবা আড়াই হাজার কোটি ডলারের শেয়ার বাজারে ছাড়ে। এখন আরামকো শেয়ার ছাড়লে আলিবাবাকে ছাড়িয়ে যাবে। আরামকোর আইপিও’র মোট ৫ শতাংশের ২ শতাংশ সৌদির তাদাউল বোর্স এবং বাকি ৩ শতাংশ শেয়ার সৌদির বাইরে ছাড়া হবে। তবে এ মূহুর্তে আন্তর্জাতিক স্টক এক্সচেঞ্জ থেকে আরামকোর শেয়ার বিক্রি হবে না। এসএন্ডপি গ্লোবাল রেটিংস বলছে আরামকোর শেয়ার পুঁজিবাজারে এলে তা সৌদি অর্থনীতিকে গতি এনে দেবে এবং তা দীর্ঘমেয়াদীভাবে সহায়ক হবে। প্রথম দিকে যাতে আরামকোর শেয়ার সৌদি ব্যবসায়ী, রাজপরিবার ও দেশটির বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের কাছে থাকে সেজন্যে দেশটির সরকার এক ধরনের প্রচ্ছন্ন চাপও সৃষ্টি করছে। সৌদি নাগরিকদের বলা হয়েছে দেশপ্রেমের দায়িত্ব থেকেই তাদের আরামকোর শেয়ার কেনা উচিত।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত