প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গৃহকর্মী নির্যাতন বন্ধে কঠিন আইন থাকলেও তার প্রয়োগ নেই, বললেন নূর খান

ডয়চে ভেলে : দেশে গৃহকর্মী নির্যাতন বন্ধ হচ্ছে না। নির্যাতনের শিকার কেউ কেউ মৃত্যুবরণ করেন। এছাড়া ধর্ষণের ঘটনাও ঘটছে। কিন্তু এর আইনি প্রতিকার হয় না। মামলা হয় অর্ধেকেরও কম।
এ প্রসঙ্গে মানবাধিকার কর্মী এবং আইন ও সালিশ কেন্দ্রের সাবেক নির্বাহী পরিচালক নূর খান বলেন, যেদেশে আইন ও বিচার ধনীদের নিয়ন্ত্রণে সেখানে গৃহকর্মী নির্যাতনের বিচার ও তাদের সুরক্ষা কঠিন আইন থাকলেও তার কার্যকর ব্যবহার হয় না। আর প্রভাবশালীদের কারণে অনেক নির্যাতনের ঘটনাই প্রকাশ পায় না।
তিনি মনে করেন, গৃহকর্মীদের অভিযোগ গ্রহণ, তাদের আইনি সহায়তাসহ আরো সব সহায়তা দেয়ার জন্য সরকারের সহায়তা সেল থাকা দরকার। আর ওই সেলে তারা যাতে অভিযোগ জানাতে পারে তার সহজ ব্যবস্থা করতে হবে। তাহলে যদি পরিস্থিতির কিছুটা উন্নতি হয়।
গৃহকর্মীদের নিয়ে কাজ করে শ্রমিক জোট বাংলাদেশ। এই সংগঠনের যুগ্ম আহবায়ক কাজি সিদ্দিকুর রহমান ডয়চে ভেলেকে বলেন, ২০১৫ সালে বাংলাদেশে গৃহকর্মী সুরক্ষা আইন হলেও তাতে নির্যাতন কমছে না। কারণ নির্যাতন হয় ঘরের মধ্যে। আর গৃহকর্মী ও তাদের পরিবার গরিব হওয়ায় আইনগত প্রতিকারও পায় না। তাদের চাপ দিয়ে অর্থের বিনিময়ে সমঝোতায় বাধ্য করা হয়।
আরেকটি সমস্যা হলো মামলা করলেও সাক্ষ্য প্রমাণ পাওয়া কঠিন, যা আগেই নষ্ট করে ফেলা হয় বলে জানান সিদ্দিকুর রহমান। তিনি বলেন, আসলে এরজন্য প্রয়োজন সচেতনতা। যারা গৃহকর্মী নিয়োগ দেন তাদের মানবিক দিক দিয়ে সচেতন করতে হবে। এর কোনো উদ্যোগ নেই। আমরা গৃহকর্মীদের তাদের অধিকার ও আইনের ব্যাপারে সচেতন করার চেষ্টা করছি। কিন্তু গৃহকর্তাদের সচেতনকরবে কে? আমরাতো আর তাদের ঘরের মধ্যে যেতে পারি না। সম্পাদনা : রাশিদ

সর্বাধিক পঠিত