প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বলিভিয়ায় অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের পদত্যাগের দাবিতে মোরালেস সমর্থকদের বিক্ষোভ, পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষ

শাহনাজ বেগম : বলিভিয়ার অন্তর্বর্তীকালীন প্রেসিডেন্ট জিয়ানিন আনেযের নিয়োগের বিরোধিতা ও তার পদচ্যুতির দাবিতে মোরালেসের সমর্থকরা রাজধানী লা পাজের রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ মিছিল করে। তারা প্রেসিডেন্ট প্যালেসের দিকে এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ বাধা দেয় এবং কাঁদুনে গ্যাস নিক্ষেপ করে। বিক্ষোভকারীরা কাঠের টুকরা ও লোহার রড নিয়ে পুলিশের ওপর চড়াও হয়। প্রতিবাদকারীরা এখন ‘গৃহযুদ্ধের’ সময় বলে শ্লোগান দিয়ে রাজধানীর লা পাজের পাশাপাশি এল আলতো ও এল চাবার অঞ্চলে বিক্ষোভ করে। রয়টার্স

ক্ষমতা গ্রহণ করার পরই বলিভিয়ায় যত তাড়াতাড়ি সম্ভব নির্বাচন দেবেন এবং বামপন্থী নেতা বা সদ্য নির্বাসিত প্রেসিডেন্ট মোরালেস তার বিরুদ্ধে অভ্যুত্থানের যে অভিযোগ করেছেন তা অস্বীকার করেছেন আনেয। এছাড়াও মোরালেসের প্রতি ইঙ্গিত করে বলেছেন তিনি দেশে ফিরে আসতে পারবেন।

গত ২০ অক্টোবর নির্বাচনে ভোট কারচুপির অভিযোগ ওঠায় ক্রমবর্ধমান চাপে এবং সহিংস বিক্ষোভ শুরু হলে পদত্যাগ করেন মোরেলেস। এতে তার ১৪ বছরের সমাজতান্ত্রিক শাসনের ইতি ঘটে। তিনি মেক্সিকোর কাছে রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়ে সেখানে চলে যান। মেক্সিকো সিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে মোরালেস বলেন, বলিভিয়াকে শান্ত করার জন্য শিগগিরই ফিরে যাব।

মোরালেসের দলের আইনপ্রণেতারা প্রেসিডেন্ট হিসেবে আনেযের নিয়োগকে অবৈধ দাবি করে কংগ্রেসে পাল্টা অধিবেশন ডেকে তাকে ক্ষমতা থেকে সরাতে চাইছে। কিন্তু বুধবার পুলিশ মোরালেরস অনুগত আইনপ্রণেতাদের দেশটির পার্লামেন্টে প্রবেশে বাধা দেয়।

দেশটির বেনি অঞ্চলের প্রতিনিধি ৫২ বছর বয়সী আনেয একজন আইনজীবী। একসময় টোটালভিশন টিভি স্টেশনের পরিচালক ছিলেন তিনি। বলিভিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে আনেযকে স্বীকৃতি দিয়ে স্বাগত জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিল। সম্পাদনা : রাশিদুল

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত