প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নব্য শিক্ষার্থীদের বরণ করতে তিতুমীর কলেজে পরিচ্ছন্নতা অভিযান

নাজমুল হুদা: নতুন অতিথিদের আগমনের সুর বেজেছে। দরজায় কড়া নাড়ছে ২০১৯-২০ সেশনের অধীনে ভর্তি-ইচ্ছুক শিক্ষার্থীদের। কিছুদিনের মধ্যেই ভর্তি পরীক্ষা দিয়ে ভর্তি হবেন ২০১৯ সালে এইচ এস সি অথবা সমমান পরীক্ষায় পাশ করা শিক্ষার্থীরা।

নতুন শিক্ষার্থীদের বরণ করে নিতেই পরিচ্ছন্ন এবং নান্দনিক ক্যাম্পাস করার লক্ষ্যে পুরো ক্যাম্পাসে পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালিয়ে রাজধানীর সরকারি তিতুমীর কলেজে (জিটিসি) ‘ক্লিন অ্যান্ড গ্রিন ক্যাম্পাস’ নামের একটি টিম।

বুধবার সকালে ক্যাম্পাসের শহীদ মিনার প্রাঙ্গণ থেকে সংগঠনের ৫০ সদস্যের অংশগ্রহণে পরিচ্ছন্নতা কাজ আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন- রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক এবং ক্লিন অ্যান্ড গ্রিন ক্যাম্পাস টিমের মডারেটর কামাল উদ্দিন হায়দার। তিনি শিক্ষার্থীদের বিভিন্ন গ্রুপে বিন্যস্ত করে কাজের সূচনা করেন। এরপর শিক্ষার্থীরা কলেজ ক্যাম্পাসের বিভিন্ন স্থানের ময়লা সংগ্রহ করে একটা নির্দিষ্ট স্থানে ফেলেন।

পরিচ্ছন্নতা অভিযানে অংশগ্রহণকারী নয়ন সরকার নামে এক শিক্ষার্থী বলেন, ‘আমরা তিতুমীরিয়ানরা সবার থেকে ভিন্ন। আমরা সবাই চাই, আমাদের এই ক্যাম্পাসকে এক টুকরো স্বর্গের মতো দেখতে। ক্যাম্পাস যেন পরিচ্ছন্ন ও সবুজাভ হয়ে ওঠে। এজন্য প্রয়োজন আমাদেরই সচেতনতা, সম্মিলিত প্রচেষ্টা ও দায়িত্বশীলতা। ক্যাম্পাসকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রেখে এর যথার্থ সৌন্দর্য ফুটিয়ে তুলতে পারলে গর্বটা হবে আমাদেরই। সেই লক্ষ্যকে বাস্তবতায় রূপ দিতেই আমাদের এই যাত্রা।’

ক্লিন অ্যান্ড গ্রিন ক্যাম্পাস টিমের অন্যতম স্বেচ্ছাসেবক নূর মোহাম্মদ সুমন জানান, বছর ঘুরে আবারও আসছে সাত কলেজের ভর্তি পরীক্ষা। দেশের বিভিন্ন প্রান্তের হাজারো ভর্তিচ্ছু পরীক্ষার্থীদের পদচারণায় মুখরিত হবে সরকারি তিতুমীর কলেজ ক্যাম্পাস। আমরা তিতুমীরিয়ানরা আমাদের নবীনদের একটু ভিন্নভাবে স্বাগতম জানাতে চাই। আমাদের প্রাণের তিতুমীর ক্যাম্পাসের সঙ্গে অন্যরকমভাবে তাদের পরিচয় করিয়ে দিতে চাই।

আবিদ মাহমুদ নামে আরেকজন শিক্ষার্থী বলেন, ‘তিতুমীরিয়ানরা সকলে দেখবে সবকিছু সাজিয়ে গুছিয়ে পরিচ্ছন্ন, পরিপাটি করা মায়াবী প্রাণবন্ত সবুজাভ এক ক্যাম্পাস। যা শুধুমাত্র একটি কলেজ ক্যাম্পাসই নয়, যা আমাদের প্রাণের, ভালোসার, প্রেমময় স্মৃতির চারণভূমি। আমরা সবাই চাই নবীনদেরকেও স্বর্গের মতো এক টুকরো ক্লিন অ্যান্ড গ্রিন ক্যাম্পাস উপহার দিতে। যার পরিবেশ সবাইকে মুগ্ধ করবে। সবার স্বপ্ন গড়ে উঠবে এই ক্যাম্পাসকে ঘিরে, সবাই স্বপ্ন দেখবে তিতুমীরিয়ান পরিবারের সদস্য হবার।’

শিক্ষার্থীদের এমন উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে কলেজ অধ্যক্ষ অধ্যাপক মো. আশরাফ হোসেন বলেন, ‘তোমাদের ক্যাম্পাসকে পরিচ্ছন্ন রাখতে তোমরা যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছ তা সত্যিই প্রশংসার দাবি রাখে। শুধুমাত্র লোক দেখানোর জন্য নয় পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা হৃদয়ে ধারণ করতে হবে।’ সম্পাদনা: জেরিন মাশফিক

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত