প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আজ বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের যাত্রা শুরু করছে টাইগাররা

ইয়াসিন আরাফাত : ভারতের বিপক্ষে টেস্ট দিয়ে আজ শুরু হচ্ছে বাংলাদেশের বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের যাত্রা। ভারতের ইন্দোরে দুই টেস্টের সিরিজের প্রথমটিতে মাঠে নামবে বাংলাদেশ। সাদা পোশাকে ভারতের শক্তি সামর্থ্য থেকে যোজন যোজন দূরে বাংলাদেশ। তারপরও ঘরের মাঠে খেলা হলে আরো ভয়ঙ্কর কোহলিরা। বিশ্বমানের বোলিং, ব্যাটিং, ফিল্ডিং সবদিক দিয়ে এগিয়ে তারা।

এদিকে, সাকিব-তামিমকে ছাড়া টাইগারদের এই যাত্রাটা মোটেও সুবিধাজনক হবে না। সাকিবের অনুপস্থিতে বাংলাদেশের টেস্ট দলের ১১তম অধিনায়ক হিসেবে অভিষেক হচ্ছে দলের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান মুমিনুল হকের। তার নেতৃত্বেই বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের যাত্রা শুরু করতে চলেছে টাইগাররা। স্বাগতিকদের বিপক্ষে ভালো খেলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি। দিয়েছেন সতীর্থদের স্বাভাবিক খেলার পরামর্শও।

অন্যদিকে, পয়েন্ট তালিকায় শীর্ষে রয়েছে ভারত। ৫ ম্যাচ খেলে সবগুলোতেই জয় রয়েছে তাদের। তাই বাংলাদেশকে কঠিন সময় পার করতে হবে। এমনিতেই সম্প্রতি বাংলাদেশ টেস্ট ম্যাচ খেলেছে অনেক কম। তাই চাপটা বাংলাদেশের ওপরই থাকবে।
বিশ্বের এক নম্বর দলের বিপক্ষে জিততে হলে সামর্থের চেয়েও বেশি ভালো খেলতে হবে। টাইগাররা তা জানেন। তারা নিজেদের মানসিকভাবে তৈরিও করছেন। ম্যাচ পূর্ব এক সংবাদ সম্মেলনে অধিনায়ক মুমিনুল জানিয়েছেন, ‘আমরা কোনোরকম চাপে নেই। আমরা সবাই জানি এই সিরিজে খুব বেশি কিছু চাওয়ার নেই। আমরা তাই চাপ নিচ্ছি না। আমরা ভালো ক্রিকেট খেলার চেষ্টা করবো।
অধিনায়ক আক্রমণের মন্ত্র জপলেও তার দলে তেমন কোনো মারণাস্ত্র নেই। বোলিংয়ে ভরসা বলতে দুই স্পিনার তাইজুল ইসলাম ও মেহেদী হাসান মিরাজ। কিন্তু ইন্দোরের পেস সহায়ক স্পোর্টিং উইকেটে স্পিনারদের কাজটা মোটেও সহজ হবে না।

অন্যদিকে, ভারতের ৩ পেসার মোহাম্মদ সামি, উমেশ যাদব ও ইশান্ত শর্মা আছেন আগুন ফর্মে। দুই স্পিনার অশ্বিন ও জাদেজাও গড়ে দিতে পারেন ব্যবধান। ভারতের ব্যাটিং ইউনিটও বিশ্বসেরা। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে সবশেষ সিরিজে দুই ওপেনার রোহিত শর্মা ও মায়াংক আগরওয়ালই করেছেন ৮৬৯ রান। এরপর আছেন কোহলি ও রাহানে। সেখানে বাংলাদেশের উদ্বোধনী জুটিতে তরুণ সাদমান ইসলামের সঙ্গী হতে পারেন অভিষেকের অপেক্ষায় থাকা সাইফ হাসান। ব্যাটিংয়ে তবু মুমিনুল, মাহমুদউল্লাহ সঙ্গে আছেন দলের অন্যতম ভরসা মুশফিকুর রহিম। মিস্টার ডিপেন্ডেবল খ্যাতি পাচ্ছেন বাংলাদেশি কোনো ব্যাটসম্যান হিসেবে ভারতের বিপক্ষে সর্বোচ্চ রান করার সুযোগ। আর ৫০ রান করতে পারলে জাতীয় দলের বাইরে থাকা সাবেক অধিনায়ক মোহাম্মদ আশরাফুলকে টপকে যাওয়ার সুযোগ পাচ্ছেন মুশফিক। কিন্তু দলে পেস আক্রমণে ভরসা করার মতো নেই একজনও।

এদিকে, অনেকদিন ধরেই নিজেকে হারিয়ে খুঁজছেন দলের অন্যতম সেরা পেসার মোস্তাফিজুর রহমান। কোহলি কাল মোস্তাফিজকে প্রশংসায় ভাসালেও ইন্দোর টেস্টে একাদশে তার জায়গা হবে কি না সেটি নিয়েই আছে সংশয়।

ইন্দোর হলকায়ে ম্যাচটি শুরু হবে সকাল ১০টায়। ভারতের অধিনায়ক বিরাট কোহলি জানিয়েছেন, বাংলাদেশের কোনো বোলার বা ব্যাটসম্যানকে আমরা হালকাভাবে নিচ্ছি না। যখন ওরা ভালো খেলে তখন খুব চৌকস দল হয়ে ওঠে। ওদের প্রতি আমাদের শ্রদ্ধা আছে। আমরা আমাদের প্রক্রিয়া ঠিক রেখে এগুবো।

অন্যদিকে,বাংলাদেশ দলের মিঠুন বলছেন, তারা জয়ের জন্য খেলবেন। প্রতিটি দলই এই লক্ষ্য নিয়ে খেলে। সেখানে বাংলাদেশের জিততে চাওয়া স্বাভাবিক। তবে টেস্ট ম্যাচ জিততে হলে স্বাগতিকদের দুবার অলআউট করতে হবে। বাংলাদেশের বর্তমান টেস্ট স্কোয়াডে শক্তিশালী একটি বোলিং লাইনআপ আছে। তারা যে কোনো কন্ডিশনে যে কোনো দলের ২০ উইকেট নেয়ার সামর্থ্য রাখে।

সবকিছু ছাপিয়ে বাংলাদেশ টেস্ট দলের পার্ফরমেন্স দেখতে অপেক্ষায় ক্রিকেট ভক্তরা। সকলেই আশা করছেন সাকিব তামিম ছাড়াও ভালো কিছু উপহার দেবে মুমিনুলের নেতৃত্বে নতুন এই দল।
ওয়াইএ/এমআই

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত