প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অভিশংসন তদন্তের প্রকাশ্য শুনানি শুরু, বিল টেইলরের সাক্ষ্য ট্রাম্পের বিরুদ্ধে

সালেহ বিপ্লব ও ম. সিদ্দিকা : বিল টেইলর এখন ইউক্রেনে যুক্তরাষ্ট্রের ভারপ্রাপ্ত রাষ্ট্রদূত। ট্রাম্পের ইম্পিচমেন্ট তদন্তের প্রথম গণশুনানিতে তিনি প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধেই তথ্য দিলেন। টেইলর জানালেন, ট্রাম্প তার ডেমোক্রেট প্রতিপক্ষ জো বাইডেনের ব্যাপারে তদন্ত করাতে মরিয়া হয়ে উঠেছিলেন। এ ব্যাপারে ইউরোপীয় ইউনিয়নে মার্কিন রাষ্ট্রদূত গর্ডন সন্ডল্যান্ডের সঙ্গে ফোনে কথা বলেছেন। ডোনাল্ড ট্রাম্প, জানিয়েছেন বি টেইলর। তবে এই অভিযোগ নাকচ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট। রিপোর্টারদের তিনি বলেন, এরকম কোন আলাপ-আলোচনার কথা তিনি মনেই করতে পারছেন না। বিবিসি

২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ট্রাম্পের বড় প্রতিদ্বন্দ্বী জো বাইডেন। ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিযোগ, তিনি আগে থেকেই এই প্রতিপক্ষকে দুর্বল করার পথ বেছে নিয়েছেন। বাইডেন ও তার ছেলের বিরুদ্ধে একটি তদন্ত করতে তিনি ইউক্রেনকে অনুরোধ করেন। আর তা না হলে সামরিক খাতে সহায়তা বন্ধ করে দেয়ার হুমকি দেন ট্রাম্প।
ট্রাম্পকে প্রেসিডেন্ট পথ থেকে সরিয়ে দেয়ার দাবির উপর প্রায় একমাস ধরে আলোচনা হচ্ছে। এতদিন শুনানি হয়েছে গোপনে, প্রকাশ্যে এই প্রথম। কূটনৈতিক বিল টেইলর বলেন, দূতাবাসের এক কর্মকর্তা ডোনাল্ড ট্রাম্প ও গর্ডন সন্ডল্যান্ডের ওই ফোনালাপ শুনে ফেলেন। রাষ্টদূত গর্ডন সন্ডল্যান্ড ওই আলাপে প্রেসিডেন্টকে জানান, ইউক্রেন রাজি আছে ট্রাম্পের প্রস্তাবে।

অবশ্য ট্রাম্প বলেছেন, গর্ডন সন্ডল্যান্ডকে তিনি তেমন একটা চেনেন না। এদিকে আগামী সপ্তাহে গর্ডন আসবেন গণশুনানিতে সাক্ষ্য দিতে। তখনই জানা যাবে, ট্রাম্পের বিরুদ্ধে অভিযোগ সত্য কিনা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত