প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৬৮ কোটি ডলার আদায়ে অনিল আম্বানির বিরুদ্ধে ৩ চীনা ব্যাংকের মামলা

রাশিদ রিয়াজ : ভারতের শীর্ষ উদ্যোক্তা ও রিলায়েন্স কম্যুনিকেশনের চেয়ারম্যান অনিল আম্বানির কাছে চীনের দি ইন্ডাস্ট্রিয়াল এন্ড কমার্শিয়াল ব্যাংক অব চায়না লি, চায়না ডেভলভমেন্ট ব্যাংক এবং দি এক্সপোর্ট-ইম্পোর্ট ব্যাংক অব চায়নার পাওনা দাঁড়িয়েছে ৬৮০ মিলিয়ন ডলার। এ তিনটি ব্যাংক থেকে ২০১২ সালে রিলায়েন্স কম্যুনিকেশন সাড়ে ৯২ কোটি ২০ লাখ ডলার ঋণ নিয়েছিল। আর স্বয়ং আম্বানির ব্যক্তিগত গ্যারান্টিতেই এ ঋণ দেয়া হয়। ইকোনোমিক টাইমস/দি কুইন্ট ডটকম

এ ঋণের কিছু অংশ পরিশোধ করলেও তা ২০১৭ সালে খেলাপিতে পরিণত হয়। এখন অনিল আম্বানি বলেছেন ঋণ পরিশোধে তিনি ব্যক্তিগত নিশ্চয়তা দিলেও তার সম্পদ থেকে এ ঋণ পরিশোধে কোনো বাধ্যবাধকতা ছিল না। বিষয়টির সঙ্গে একমত না হওয়ায় আদালতে গিয়েছে ওই ৩ চীনা ব্যাংক। এদিকে অনিল আম্বানির আইনজীবী রবার্ট হোয়ি বলেছেন ব্যক্তিগতভাবে আম্বানি কিংবা তার কোম্পানির পক্ষে ঋণ পরিশোধ করা সম্ভব হয়নি। ২০১১ সালে এ নিয়ে দফারফা করতে আম্বানি বেইজিং যান। সমস্যার সমাধান না হওয়ায় এখন প্রশ্ন উঠেছে এ ঋণ শোধের দায়ভার কার। ৭ বছর আগে এ ঋণের জন্যে আম্বানির পক্ষে চুক্তিপত্রে স্বাক্ষর করেছিলেন রিলায়েন্সের কমার্শিয়াল এন্ড ট্রেজারি প্রধান হাসিত শুকলা। এখন আইনজীবী রবার্ট হোয়ি বলছেন শুকলাকে আম্বানির পক্ষে চীনা ঋণের গ্যারান্টার হওয়ার অনুমতি দেননি।

তিনটি চীনা ব্যাংক এক বিবৃতিতে বলেছে অনিল আম্বানির গ্যারান্টি পেয়েই তারা ভাল বিশ^াসেই এ ঋণ দিয়েছে। আদালতে দায়ের করা মামলায় তারা ঋণ পরিশোধে আম্বানিকেই প্রথম খেলাপি হিসেবে চিহ্নিত করেছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত