প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

টানা বিক্ষোভে হংকংয়ে ‘আইনের শাসন ধসের দ্বারপ্রান্তে’ বলে সতর্ক করলো পুলিশ

শাহনাজ বেগম : হংকংয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্যাম্পাসে বিক্ষোভকারী ও দাঙ্গা পুলিশদের মধ্যে তীব্র লড়াইয়ের পর দেশটির বিক্ষোভ আরো ভয়াবহ আকারের দিকে মোড় নিচ্ছে। রাতভর বিক্ষোভের পর বুধবার পরিস্থিতি স্থিতিশীল হলে পুলিশের মুখপাত্র কং উইং চেউং এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে গত দুদিনের সহিংসতার কথা উল্লেখ করে সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমাদের সমাজকে পুরোপুরি পতনের দিকে ঠেলে দেয়া হয়েছে’। পুলিশ সতর্ক করে দিয়ে বলেছেন, বিক্ষোভের কেন্দ্রবিন্দু চীনা বিশ^বিদ্যালয়ের হংকং ক্যাম্পাসের মঙ্গলবার রাতের তীব্র বিক্ষোভে অনুষদ ও কর্মীরা বাধা দিলেও তা অব্যাহত থাকে। বিক্ষোভের পর কয়েকটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান, মেট্রো স্টেশন, রেললাইন এবং বাস সার্ভিসগুলো বন্ধ রয়েছে। সিএনএ, সিএনএন

মুখোশধারী বিক্ষোভকারীরা মেট্রোরেলের লাইনে সাইকেল, মাল্টভ ককটেল, ধাতব টুকরা এবং অন্যান্য আবর্জনা ফেলে বাধা দেয় এবং বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন করে দেয়ার চেষ্টা করে। তাদের এসব কর্মকাণ্ডে ব্যবস্থা প্রায় অচল হয়ে পড়ে। এ পর্যায়ে পুলিশ বিক্ষোভকারীকে লক্ষ্য করে গুলি করে এবং অন্য একজনের গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। তবে পুলিশের মুখপাত্র বিক্ষোভকারীর গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয়া ওই অগ্নিদগ্ধ ব্যক্তির অবস্থা আশঙ্কাজনক জানিয়ে বলেন, কে বা কারা তার গায়ে প্রেট্রোল ঢেলে আগুন ধরিয়ে দিয়েছে তা খুঁজে বের করা হবে। ওই সময় এক ডজনের বেশি বিক্ষোভকারীকে আটক করা হয়।

একই সংবাদ ব্রিফ্রিংয়ে অন্য এক পুলিশ কর্মকর্তা সোমবার বিক্ষোভকারীদের ওপর পুলিশের গুলিবর্ষণের পক্ষ সমর্থন করে বলেন, আমাদের সহকর্মীরা যে কারো না কারো কাছ থেকে হুমকির মুখে পড়ছে তাই নয় বরং এক দল মানুষ সংগঠিতভাবে পরিকল্পনা করে আমাদের বন্দুক চুরির চেষ্টা চালায়।
চীনের মূলভূখণ্ডে বন্দি প্রত্যর্পণ নিয়ে একটি প্রস্তাবিত বিল বাতিলের দাবিতে গত জুন মাস থেকে হংকংয়ে এ বিক্ষোভ শুরু হয়। সম্পাদনা : রাশিদুল

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত