প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ট্রেন দুর্ঘটনায় আখাউড়া থানায় অপমৃত্যুর মামলা

মহসীন কবির : ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় কসবার মন্দবাগ রেলস্টেশনে ২টি ট্রেনের সংঘর্ষে ১৬ জন নিহত হওয়ার ঘটনায় আখাউড়া জিআরপি থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে। মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) রাতে স্টেশন মাস্টার জাকির হোসেন বাদী হয়ে মামলাটি দায়ের করেন। আখাউড়া জিআরপি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শ্যামল কান্তি দাস সকালে মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাটির তদন্ত শুরু হয়েছে। তদন্তের পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে জেলা প্রশাসনের গঠিত তদন্ত কমিটি কার্যক্রম শুরু করেছে বলে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। তবে নির্ধারিত ৩ দিনের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দেওয়া সম্ভব হবে না বলে সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে। এছাড়াও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি হওয়া আহতদের উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকাসহ বিভিন্ন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।  এদিকে বুধবার দুপুরে বাংলাদেশ রেলওয়ের উচ্চ ক্ষমতাসম্পন্ন একটি প্রতিনিধি দলের ঘটনাস্থল পরিদর্শন করার কথা রয়েছে।

গতকাল সোমবার দিবাগত রাত ২ টা ৪৮ মিনিটে উপজেলার মন্দবাগে চট্টগ্রাম থেকে ঢাকাগামী তূর্ণা নিশীথা ও সিলেট থেকে চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেস ট্রেন দুটির মধ্যে সংঘর্ষের এ ঘটনা ঘটে। এ সময় একটি ট্রেনের একাধিক বগি আরেকটি ট্রেনের কয়েকটি বগির ওপর উঠে যায়।

স্টেশন ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, তূর্ণা নিশীথা ট্রেনের চালক সিগন্যাল (সংকেত) অমান্য করায় এই দুর্ঘটনা ঘটে। মন্দবাগ রেলস্টেশনে দাঁড়ানোর জন্য এই সিগন্যাল দেওয়া হয়। ওই সিগন্যালে সিলেট থেকে ছেড়ে আসা চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেস প্রধান লেন থেকে ১ নম্বর লাইনে যেতে শুরু করে। ট্রেনটির ছয়টি বগি ১ নম্বর লাইনে উঠতে পেরেছিল। অন্য বগিগুলো প্রধান লেনে থাকা অবস্থায় তূর্ণা নিশীথা সিগন্যাল অমান্য করে। এতে তূর্ণা নিশীথার একাধিক বগি ওই ট্রেনের কয়েকটি বগির ওপর উঠে যায়। এতে উদয়নের তিনটি বগি দুমড়েমুচড়ে যায়। নিহত ১৬ জন সবাই উদয়নের যাত্রী বলে জানা গেছে।

সময় টিভি

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত