প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রেলকর্তৃপক্ষকে চালকদের উপযুক্ত প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা নেয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর

জান্নাতুল ফেরদৌসী: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলার মন্দবাগ রেলওয়ে স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় মঙ্গলবার ভোর রাত সাড়ে ৩টায় চট্টগ্রাম থেকে ঢাকাগামী তূর্ণা নিশীথা এক্সপ্রেসের সাথে সিলেট থেকে চট্টগ্রামগামী উদয়ন এক্সপ্রেসের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এই ভয়াবহ দুর্ঘটনায় শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। আহত হয়েছেন শতাধিক যাত্রী। গুরুতর আহত ২০ জন। এ দুর্ঘটনায় শোক প্রকাশ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা যেন আর না ঘটে তার জন্য চালক ও সংশ্লিষ্টদের আরো অধিক প্রশিক্ষণ দিতে হবে। সূত্র: সময় টিভি, দৈনিক আমাদের সময়

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) সকালে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে রপ্তানি প্রক্রিয়াজাতকরণ এলাকা কর্তৃপক্ষ বেপজার ৩৪তম গভর্নিং বোর্ডের সভার শুরুতে দেওয়া বক্তৃতায় প্রধানমন্ত্রী একথা বলেন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের রেলমন্ত্রী চলে গেছেন ওখানে (দুর্ঘটনাস্থল)। আমাদের সকলেই সেখানে উদ্ধারকাজে লিপ্ত রয়েছে। এটা অত্যন্ত দুঃখজনক একটা ঘটনা।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা বুলবুলের মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগ থেকে নিজেদের রক্ষা করতে পারলাম। কিন্তু দুভার্গ্য যে এ ধরনের একটা ঘটনা ঘটে গেল। আর আমি জানি না কেন, এই শীত মৌসুম আসলেই কিন্তু শুধু আমাদের দেশে নয়, সারা বিশ্বেই আমি দেখেছি যে রেলে এই দুর্ঘটনাটা ঘটতে থাকে।’

তিনি আরও বলেন, ‘এ ব্যাপারে আমাদের যারা রেলে কাজ করে তাদের আরও সতর্ক করা উচিত। সেইসঙ্গে যারা রেলের চালক তাদেরও প্রশিক্ষণের প্রয়োজন।’

রেল যোগাযোগটা সবচেয়ে নিরাপদ জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমরা এটার ওপর গুরুত্ব দিয়েছি। আমরা এখন নতুন নতুন রেল সম্প্রসারণ করে দিচ্ছি। পণ্য পরিবহন, মানুষ পরিবহনসহ সব ক্ষেত্রে রেল নিরাপদ। যাহোক, এটা দুর্ঘটনা ঘটে গেছে। যারা মারা গেছে তাদের রুহের মাগফেরাত কামনা করছি। যারা আহত হয়েছে তাদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করছি।’

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত