প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কি নিয়ে লিখবো?

মো. শামসুল আলম : আমি লেখালেখি কিরে নেহায়েতই শখে। বাংলাদেশে শুধু লেখালেখি করে সংসার চালানোর কথা কেউ চিন্তা করেন না। প্রতিদিনই ভাবী আর লিখবো না। কিন্তু লেখালেখির নেশা মাথায় চেপে বসলে এ থেকে মুক্তি পাওয়া কঠিন। লিখতে গিয়ে আরেক সমস্যা কি নিয়ে লিখবো? আজ সকাল থেকে চিন্তা করছি কি নিয়ে লেখা যায়। অনেক কিছু নিয়েই তো লিখতে ইচ্ছে করে। কিন্তু এখানেও সমস্যা। শিক্ষা নিয়ে লিখতে গেলে শিক্ষকরা রাগ করেন। শিক্ষা নিয়ে কিছু পড়াশোনার সুবাদে শিক্ষার খুঁটিনাটি কিছু বিষয়ে আমি আমার মতামত দিতে পারি। কিন্তু শুনলাম অনেক শিক্ষক নাকি এতে রেগে গেছেন।

আমি নিজেও শিক্ষকতা করেছি। ভবিষ্যতে যে আর করবো না তাও বলতে পারি না। আমি তো শিক্ষার উন্নয়নের কথাই বলি। র‌্যাঙ্কিং, কোয়ালিটি অ্যাসুরেন্স বা এ জাতীয় সমস্যাগুলো নিয়ে তিন-চার বছর থেকেই লিখছি। কাউকে ব্যক্তিগত আক্রমণ করছি না। কিন্তু এতেও নাকি অনেকে রাগ করছেন বলে আমি নিশ্চিত হয়েছি। মিডিয়া নিয়েও আমি পত্রিকায় অনেক লিখেছি। কোনো কোনো লেখায় সাংবাদিকতার প্রশংসা কোনোটায় সমালোচনা করি। এতেও অনেকে রাগ করেন। চিকিৎসা নিয়ে লিখলে ডাক্তাররা ভয়াবহ রাগ করেন। তারা আবার বেশিমাত্রায় সেনসেটিভ।

একবার পরিবারের একজনের ভুল চিকিৎসা নিয়ে পত্রিকায় লিখলাম। কোনো কোনো ডাক্তার এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ই-মেইলে আমার কাছে চিকিৎসার কাগজপত্র চেয়ে পাঠালেন। খেলাধুলা নিয়ে লিখলেও একই অবস্থা। ক্রিকেট, ফুটবলের রাজনীতি বা খেলোয়াড়দের বিপক্ষে কোনো লেখা হলে সমর্থকরা পছন্দ করেন না। গালিগালাজ করেন। রাজনীতি নিয়ে তো আমি লিখতেও চাই না। রাজনৈতিক মহলে আমার যোগাযোগ নেই আর আমি কোনো রাজনীতিবিদকে ব্যক্তিগতভাবে চিনি না। সুতরাং রাজনীতি নিয়ে কোনো ভবিষ্যৎ বাণী করা আমার জন্য কঠিন। মাঝে মাঝে হয়তো দু’একটা কমেন্ট্রি লেখা যায়, কিন্তু রাজনীতি নিয়ে নিয়মিত লেখালেখি আমার পক্ষে সম্ভব নয়, আমিও তা চাই না।

প্রশ্ন হচ্ছে : তাহলে কি নিয়ে লিখবো? আমি তো তৈলাক্ত লেখা পছন্দ করি না। সাংবাদিকতায় আমাদের শেখানো হয়েছে ভালো লেখা সেটাই যেটা পড়লে সব পক্ষই ক্ষিপ্ত হবে। কিন্তু এ রকম লেখা এখন বেশ কঠিন। কেউ আঘাত পাবেন না এ রকম লেখা লিখতে গেলে আমাকে লিখতে হবে ফুল, পাখি, কবুতর, আইসক্রিম, প্রেম এসব নিয়ে। বা প্রশংসার বানে ভাসিয়ে দিতে হবে সবাইকে। কিন্তু এটা কি সম্ভব? এগুলো কি সমাজের কোনো কাজে আসবে? ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত