প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মেয়ে হয়েও স্ফীত লিঙ্গের কারণে জন্ম সনদে ছেলে হিসেবে স্বীকৃত!

মুসবা তিন্নি : সাত মাস আগে সন্তান জন্ম দিয়েছিলেন কাজাখস্তানের আলমাটির বাসিন্দা ক্রিস্টিনা ববকোভা। হাসপাতাল থেকে তাকে জানানো হয়েছিলো, পুত্রসন্তানের মা হয়েছেন তিনি। পরে, হাসপাতালেই জন্মসনদ তৈরি করে শিশুটির নাম রাখা হয় ম্যাক্সিম। সংবাদ প্রতিদিন

হাসপাতাল থেকে ফেরার পর ধীরে ধীরে শুকিয়ে যেতে থাকে ম্যাক্সিম। প্রচণ্ড দুর্বল শিশুটির সমস্যা সম্পর্কে জানার জন্য চিকিৎসকের কাছে নেয়া হলে জানা যায় শিশুটি আসলে ছেলে নয়, মেয়ে।

বিরল অ্যাড্রেনোজেনিটাল সিনড্রোমে আক্রান্ত শিশুটি। এই রোগে তার লিঙ্গের আকৃতি স্ফীত হয়ে যায়। লিঙ্গের ভিন্নতর আকৃতির কারণেই হাসপাতালের চিকিৎসকরা ভুল করে তাকে ছেলে মনে করেছিলেন।

শিশুটির মা ক্রিস্টিনা জানান, হাসপাতাল থেকে আসার পর শিশুটি দিন দিন দুর্বল হতে থাকে। তীব্র অসুস্থ শিশুটির চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেয়া হলে পরীক্ষা-নিরীক্ষার পর চিকিৎসকরা জানান, সে বিরল রোগে আক্রান্ত।

এর পরপরই ক্রিস্টিনা তার সন্তানের নাম পরিবর্তন করে রাখেন আনা কিন্তু আনা’র জন্মসনদ অনুযায়ী সে এখনো ছেলে হিসেবেই স্বীকৃত। সহজে তার জন্মসনদ পরিবর্তন করা সম্ভব হচ্ছে না। বিষয়টি সমাধানের জন্য ক্রিস্টিনা আদালতে অভিযোগ করলে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে নতুন জন্মসনদ তৈরির নির্দেশ দেয়া হয়।

ক্রিস্টিনা জানান, হাসি ও আচরণে এমনকি চিৎকারেও শিশুটি মেয়ে। শুধু তার লিঙ্গই স্ফীত। শিশুটি এখনো চিকিৎসাধীন। বয়স ১৮ মাস হলে তার সার্জারি করা হবে বলে জানানো হয়েছে। সম্পাদনা : এইচ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত