প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

২০২৫ সালের মধ্যে ভোক্তারা ফাইভ-জির প্রতি আকৃষ্ট হবে, জিএসএম অ্যাসোসিয়েশনের গবেষণা

হাসনাত কুশল : ২০২৫ সালের মধ্যে চীন, যুক্তরাষ্ট্র, জাপান ও কোরিয়া সারা বিশ্বের মধ্যে ফাইভ-জি মোবাইল নেটওয়ার্কের সবচেয়ে বেশি ভোক্তা সংগ্রহ করতে পারবে ব্রিটিশ বার্তাসংস্থা রয়টার্সকে বৃহস্পতিবার এমন তথ্য জানিয়েছে জিএসএম অ্যাসোসিয়েশন। তারা জানায়, এক্ষেত্রে  পিছিয়ে পড়বে ইউরোপ। তবে ফাইভ-জি প্রযুক্তিতে এখনই কারখানাগুলোতে রোবট, অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি ও সেন্সর যুক্ত হয়ে ব্যবসায়ের পরিসরকে বিস্তীর্ণ করেছে। খবর রয়টার্সের

জিএসএম অ্যাসোসিয়েশনের গবেষণা বিভাগের প্রধান টিম হাট রয়টার্সকে জানান, চারটি দেশের এ প্রযুক্তির ব্যবহারের মধ্য দিয়ে সারা বিশ্ব এ প্রযুক্তি ব্যবহার করবে। চীন, জাপান, কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্র এই দেশগুলো ২০২৫ সালের মধ্যে বিশ্বে সবচেয়ে বেশি ভোক্তা সংগ্রহ করতে পারবে।দ্রুতগতিসম্পন্ন ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক স্মার্টফোনে কোনো একটি ভিডিও অথবা মুভি এক সেকেন্ডের কম সময়ে ডাউনলোড করতে সক্ষম।

রয়টার্সকে সংস্থাটি জানায়, কোরিয়ায় ৬৬ শতাংশ মানুষের মোবাইলে ফাইভ-জির সংযোগ দেয়া হবে।এ সময় যুক্তরাষ্ট্রে ৫০ শতাংশ ও জাপানে ৪৯ শতাংশ মানুষের মোবাইলে এ সংযোগ দেয়া হবে বলেও জানায় তারা।নিছক সংখ্যার খাতিরে সংস্থাটি জানায়, চীন ৬০ কোটি ফাইভ-জি সংযোগ দিতে চায়। সংস্থাটি অনুমান করছে, ২০২৫ সালের মধ্যে বিশ্বব্যাপী প্রায় ২০ লাখ লোক ফাইভ-জি নেটওয়ার্কের মধ্যে আসবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত