প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারতীয় মহাকাশচারীদের ‘লাইফ সাপোর্ট সিস্টেম’ দেবে রাশিয়া

ইয়াসিন আরাফাত : মহাকাশে মানুষ বহনকারী প্রথম মকাকাশযান পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে ভারত। মহাকাশে বায়ুম-লহীন পরিবেশে নিরাপদে থাকার জন্য ভারতীয় মহাকাশচারীদের প্রশিক্ষণ দিতে আগ্রহ প্রকাশ করেছে রাশিয়া। এরই অংশ হিসেবে ভারতের মহাকাশচারীদের ‘লাইফ সাপোর্ট সিস্টেম’ দিবে বলেও জানিয়েছে রাশিয়া। আনন্দবাজার পত্রিকা

রাশিয়ান মহাকাশ গবেষণা সংস্থার ‘রসকসমস’ এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ১০ হাজার কোটি টাকার ‘গগনযান’ অভিযানে ইসরোকে তারা দু’টি গুরুত্বপূর্ণ সরঞ্জাম সরবরাহ করবে তারা। সেই সরঞ্জামগুলোর একটি মহাকাশে ‘লাইফ সাপোর্ট সিস্টেম’। সেই লাইফ সাপোর্ট সিস্টেমে থাকবে বায়ুম-লহীন পরিবেশে শূন্য অভিকর্ষ বলে মহাকাশচারীদের বেঁচে থাকার জন্য জরুরি শ্বাস-প্রশ্বাসের বাতাস, পানি, খাবার-দাবার সরবরাহ করার ব্যবস্থা।

এছাড়া মহাকাশচারীদের বেঁচে থাকার জন্য যা যা প্রয়োজন তার সবই থাকবে এই লাইফ সাপোর্ট সিস্টেম। মহাকাশের হাড় জমানো ঠান্ডাতেও যাতে মহাকাশচারীরা তাদের দেহের স্বাভাবিক তাপমাত্রা বজায় রাখতে পারেন, সেটাও সুনিশ্চিত করবে এই লাইফ সাপোর্ট সিস্টেম। মহাকাশচারীদের প্রতিদিনের বর্জ্য সংগ্রহ ও তার রূপান্তরও হবে ওই সিস্টেমের আর একটি কাজ।
এছাড়াও মহাকাশযানের তাপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থার যাবতীয় সর্বাধুনিক উপকরণও দেবে রুশ মহাকাশ সংস্থা। যা অভিযানের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত মহাকাশযানের তাপমাত্রাকে একটি কাঙ্খিত সীমার মধ্যে ধরে রাখতে পারবে। যাতে প্রচন্ড ঠান্ডা তাপমাত্রায় মহাকাশযানের কোনও অংশ নষ্ট বা নিষিক্রয় হয়ে না যায়।

ছয়ের দশক থেকেই মহাকাশে মানুষ পাঠানোর প্রস্তুতি শুরু করায় এসব প্রযুক্তি ও সরঞ্জাম বানানোর ক্ষেত্রে অন্য দেশগুলোর চেয়ে এগিয়ে রয়েছে রাশিয়া। এদিকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী ইতিমধ্যেই ঘোষণা দিয়েছেন, ২০২২ সালে ভারত মহাকাশে মানুষ পাঠাবে। তাই সর্বাধুনিক প্রযুক্তি ও সরঞ্জাম উদ্ভাবন করার পেছনে অতিরিক্ত সময় ব্যয় করতে চাইছে না ইসরো। এর পরিবর্তে রাশিয়ার দিকে ঝুঁকছে দেশটি। তাই বলাই যায় রাশিয়া হয়ে উঠতে চলেছে ইসরোর বন্ধু।
ওয়াইএ/এসবি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত