প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৫০টা ডিম খেলেই নগদ ২,০০০, চ্যালেঞ্জ নিয়ে বেঘোরে মৃত্যু

রাশিদ রিয়াজ : ধরে নিয়েছিলেন এ বার জিতবেন, হেলায়। চ্যালেঞ্জটা আসামাত্র দেরি করেননি। লুফে নেন বছর বিয়াল্লিশের ওই ব্যক্তি। ৪১টি ডিম বেমালুম সাবড়েও দেন। বাকি ছিল আর মাত্র ৯টা। বন্ধুরা সবাই ধরেই নিয়েছিলেন, নিশ্চিত বাজিতে তাঁরা হারছেন। পকেট থেকে দু-হাজার বেরও করে ফেলেছিলেন।
দু-হাজার টাকা তাঁর কাছে বড় ছিল না। বরং বাজিমাত করাই ছিল আসল লক্ষ্য। নিজের উপর এ নিয়ে অগাধ আস্থাও ছিল। কারণ, খাওয়া নিয়ে এমন বাজি আগেও জিতেছেন। বিপত্তি ঘটে তখনই। ৪২তম ডিম গলাধঃকরণের পরেই খাবার টেবিলে ঢলে পড়েন ওই ব্যক্তি। জ্ঞানও ছিল না। দেরি না-করে, তত্‍‌ক্ষণাত্‍‌ ওই ব্যক্তিকে নিয়ে হাসপাতালে দৌড়ান বন্ধুরা। কিন্তু, বাঁচানো যায়নি। কয়েক ঘণ্টার মধ্যে হাসপাতালেই তিনি মারা যান। ডাক্তাররা জানান, অতিরিক্ত খাওয়ার কারণেই ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে ভারতে যোগীরাজ্য উত্তরপ্রদেশের জৌনপুরে। পুলিশ জানিয়েছে, মৃত ব্যক্তির নাম সুভাষ যাদব (৪২)।

পুলিশ সূত্রে খবর, বন্ধুদের সঙ্গে জৌনপুরের বিবিগঞ্জ মার্কেটে গিয়েছিলেন সুভাষ যাদব। সেখানে বসে বন্ধুরা ডিম খাওয়ার সময়, হঠাত্‍‌ই চ্যালেঞ্জ হয়। ঠিক হয়, ৫০টা ডিম খেতে পারলেই ২০০০ টাকা আর্থিক পুরস্কার। বন্ধুদের মধ্যে একমাত্র যাদবই চ্যালেঞ্জটা নেন। সঞ্জয় গান্ধী পোস্ট গ্র্যাজুয়েট ইনস্টিটিউট অফ মেডিক্যাল সায়েন্সে ভর্তি করা হলে, সেখানে কয়েক ঘণ্টা পর তাঁর মৃত্যু হয়।

চ্যালেঞ্জের যে এমন চরম পরিণতি হতে পারে, বন্ধুদের ভাবনাতেও ছিল না। স্বভাবতই অনুতপ্ত। আজীবন এই অনুতাপ বয়ে বেড়াতে হবে। আফশোসও ঝরে পড়ে, খেলাচ্ছলে এমন বাজি না লড়লেই ভালো করতেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত