প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ধর্মযোদ্ধাদের লুকিয়ে রাখা সোনার সুড়ঙ্গ ইসরায়েলে

মাজহারুল ইসলাম : লেসার প্রযুক্তি ব্যবহার করে মাটির তলায় লুকিয়ে রাখা ৮’শ বছরের পুরনো সোনার সুড়ঙ্গের খোঁজ পেলেন বিজ্ঞানীরা। খোঁড়াখুঁড়ি করে সেই সম্পত্তি এখন তুলে আনার অপেক্ষা। ন্যাশনাল জিয়োগ্রাফিক চ্যানেলের বিজ্ঞানী লিন এবং তার দল সম্প্রতি এই খোঁজ পেয়েছেন। আনন্দবাজার

লিন জানিয়েছেন, একাদশ শতকে ধর্মযুদ্ধের সময় ইসরায়েলের শহর একরির নিচে খ্রিস্টান যোদ্ধারা সুড়ঙ্গ তৈরি করেছিলেন। ধর্মযুদ্ধ ছিলো ইসরায়েলকে মুসলিম আধিপত্য থেকে মুক্ত করে খ্রিস্টধর্মের সূচনা করা। ধর্মযুদ্ধের সময় ইসরায়েলের ওই শহরই ছিলো যোদ্ধাদের সদর দপ্তর। ওই সদর দপ্তরটি যাতে সহজে খুঁজে না পাওয়া যায়, সেজন্য একরি শহরের মাটির অনেকটা নিচে ওই সুড়ঙ্গ তৈরি করা হয়েছিলো। গোপন সুড়ঙ্গ দিয়ে সদর দপ্তরে পৌঁছাতেন যোদ্ধারা। এই সুড়ঙ্গ দিয়েই তারা যুদ্ধের প্রয়োজনীয় সামগ্রী এবং সঙ্গে প্রচুর সোনা নিয়ে যেতেন।

অনেক ইতিহাসবিদ মনে করেন, সুড়ঙ্গটি স্বর্ণের মতো মূল্যবান সম্পদ নিয়ে যাওয়ার পাশাপাশি সেনাদের লুকিয়ে থাকা ও পালানোর রাস্তা হিসেবেও ব্যবহৃত হতো। সুড়ঙ্গটি মাটির ঠিক কতটা নিচে রয়েছে এবং এর বিস্তৃতি কতটা জায়গাজুড়ে তা জানার চেষ্টা চালাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। একরি শহরে মাটির উপরে খ্রিস্টান ধর্মযোদ্ধাদের সদর দপ্তরের ধ্বংসস্তূপ এখনও রয়েছে।

এই সুড়ঙ্গ মাটির ঠিক কতটা নিচে এবং তার বিস্তৃতি কতটা জায়গা জুড়ে রয়েছে তা জানার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। বিজ্ঞানীরা বলেন, ভালো করে খোঁড়াখুড়ি করলে ধর্মযোদ্ধাদের লুকিয়ে রাখা অনেক সোনা উদ্ধার করা যাবে মাটির নিচের ওই সদরদপ্তর এবং সুড়ঙ্গ থেকে।
এমআই/ওয়াইএ

সর্বাধিক পঠিত