প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইনফোসিসে দুর্নীতির অভিযোগ, একদিনে ৫৩ হাজার কোটি টাকা খোয়ালেন ভারতের বিনিয়োগকারীরা

রাশিদ রিয়াজ : বড়সড় লোকসানের মুখে পড়তে হল ইনফোসিসের শেয়ার হোল্ডারদের। সংস্থার সিইও-র বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ ওঠার জেরে মঙ্গলবার রেকর্ড অঙ্কের পতন ঘটে ইনফোসিসের শেয়ারে। একদিনে প্রায় ১৭ শতাংশ কমে যায় শেয়ারের দাম। এর ফলে শেয়ার হোল্ডারদের প্রায় ৫৩ কোটি টাকা লোকসান হয়েছে বলে খবর।

ইনফোসিসের তরফে জানানো হয়েছে, সংস্থার সিইও সলিল পারেখ এবং সিএফও নীলাঞ্জন রায়ের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। সংস্থার অন্দরেরই অজ্ঞাত পরিচয় কোনও গোষ্ঠী দুই শীর্ষ কর্তার বিরুদ্ধে অভিযোগ এনেছে। সংস্থার নিয়ম মেনে সেই অভিযোগপত্র জমা দেওয়া হয়েছে অডিট কমিটির কাছে। এই কমিটি তদন্তে করে সংস্থার দুই কর্তার বিরুদ্ধে ওঠা অভিযোগ খতিয়ে দেখবে। মঙ্গলবার সংস্থার চেয়ারম্যান নন্দন নিলেকানির তরফে একটি বিবৃতি প্রকাশ করা হয়। নিলেকানি বলছেন, “গত ১০ ও ১১ অক্টোবর দুটি অভিযোগপত্র জমা দিয়েছেন নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দুই ব্যক্তি। এরা কেউই সংস্থার একজিকিউটিভ কাউন্সিলের সদস্য নন। অডিট কমিটি দুটি অভিযোগপত্র নিয়েই তদন্ত করছে। কমিটির রিপোর্টের পরই পরবর্তী পদক্ষেপ করবে কাউন্সিল।” তবে, এই প্রথম নয় ইনফোসিসের সিইও ও সিএফও-র বিরুদ্ধে গত মাসেও একই অভিযোগ উঠেছিল। গত ২০ সেপ্টেম্বর একটি একই ধরনের অভিযোগপত্রে প্রমাণস্বরূপ কয়েকটি ই-মেল এবং ভয়েস স্যাম্পলও পাঠানো হয়েছে। সেগুলিও যাচাই করে দেখা হচ্ছে।

এই খবর প্রকাশ্যে আসতেই বিদ্যুৎ গতিতে কমতে থাকে ইনফোসিসের শেয়ারের দাম। কিছুক্ষণের মধ্যেই ভারতের দ্বিতীয় বৃহত্তম তথ্য প্রযুক্তি সংস্থার শেয়ারের দাম কমে যায় ১০ শতাংশ। বাজার বন্ধ হওয়ার সময় শেয়ারের দাম কমতে কমতে ১৭ শতাংশ কমে যায়। শেষবার এই পরিস্থিতি সৃষ্টি ৬ বছর আগে ২০১৩ সালে। সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে এনডিটিভির দাবি, ইনফোসিসের শেয়ারের এই পতনের ফলে প্রায় ৫৩ হাজার কোটি টাকা লোকসান হবে শেয়াহোল্ডারদের।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত