প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

১১ দাবি না মানা পর্যন্ত সবধরনের ক্রিকেট বর্জনের ঘোষণা সাকিবদের

আক্তারুজ্জামান : বেতন বাড়ানোসহ ১১ দফা দাবি পূরণ না হওয়া পর্যন্ত সব ধরনের ক্রিকেট থেকে বিরত থাকার ঘোষণা দিয়েছেন টাইগাররা।

সোমবার বিকালে মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে গণমাধ্যমের মুখোমুখি হন ক্রিকেটাররা। এসময় সাকিবসহ বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন।

১১ দফার প্রত্যেকটি উল্লেখ করতে একে একে সাংবাদিকদের সামনে আসেন নাঈম ইসলাম, মাহমুদউল্লাহ,

১ম দফায় নাঈম ইসলাম উল্লেখ করেন বিসিবির বোর্ড সভাপতির বিষয়। তিনি বলেন বোর্ড সভাপতি নির্বাচিত হবে ভোটের মাধ্যমে। ক্রিকেটাররা নির্বাচন করবেন সভাপতিকে।

২য় দফা উল্লেখ করে বক্তব্য দিতে আসেন সহঅধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।  প্রিমিয়ার লিগের বেতনের মানদণ্ড নিয়ে সব ক্রিকেটারের অসন্তোষ আছে বলে মন্তব্য করেন তিনি। ক্রিকেটার ও তাদের বেতনের মানদণ্ড বেধে দেয়াটা অসঙ্গতিপূর্ণ। তাই এটা যেনো বন্ধ করা হয়। প্রিমিয়ার লিগ যেনো আগের অবস্থায় ফিরে যায় সেই ব্যবস্থা রাখতে বলেছেন রিয়াদ।

৩য় দফা নিয়ে হাজির হন মুশফিুকর রহিম। বিপিএল সংক্রান্ত ব্যাপার নিয়ে কথা বলেন তিনি। নতুন নিয়মকে সম্মান জানিয়ে বিপিএল আগের অবস্থায় ফিরে আসবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন মুশফিক। সেই সঙ্গে বিদেশি ক্রিকেটারদের মূল্যের সঙ্গে দেশি ক্রিকেটারদের মূল্যের যেনো তারতম্য না হয় সেটাও খেয়াল রাখতে বলেন।

৪র্থ ও ৫ম দফা বলতে আসেন দলনায়ক সাকিব আল হাসান। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট নিয়েই কথা বলেন তিনি। একাধারে অনেক কথা বলেন সাকিব। ফার্স্টক্লাস ক্রিকেটে ৫০ শতাংশ বেতন বৃদ্ধির পাশাপাশি ডেইলি অ্যালাউন্সও বাড়ানোর দাবি তুলেছেন এ অধিনায়ক। কোচ, টেইনার ও ফিজিওর ব্যাপারে বোর্ডের আরও সহায়তা চেয়েছেন সাকিব।

৬ষ্ঠ দফা নিয়ে হাজির হন এনামুল হক জুনিয়র। বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট জয়ের নায়ক দাবি তোলেন জাতীয় দলে চুক্তিভুক্ত ক্রিকেটারদের সংখ্যা বাড়ানোর। সেই সঙ্গে চুক্তিভুক্ত ক্রিকেটারদের পারিশ্রমিক বাড়ানোর আওয়াজও তোলেন এ বাঁহাতি স্পিনার।

৭ম দফা নিয়ে কথা বলতে আসেন দেশসেরা ওপেনার তামিম ইকবাল। তার দাবি ছিলো মানবিক। ক্রিকেটের উন্নয়নে যারা দিন-রাত পরিশ্রম করে সেই গ্রাউন্ডসম্যানদের বেতন বাড়ানোর দাবি তোলেন তামিম। সারামাস ঘাম ঝরানো পরিশ্রম করে ৫ থেকে ৬ হাজার টাকা বেতন পান যা খুবই দুঃখজনক ব্যাপার।

সেই সঙ্গে তামিম কথা বলেন দেশিয় কোচ নিয়েও। আমরা নিজেরাই দেশিয় কোচকে প্রমোট করি না। বিদেশ থেকে যে টাকা দিয়ে কোচ আনি সেই টাকা দিয়ে দেশের ২০টি কোচ দায়িত্ব পালন করতে পারবে। পাশাপাশি আম্পায়ারদের পারিশ্রমিক বাড়ানোর দাবিও জানিয়েছেন তামিম।

৮ম পয়েন্ট নিয়ে আসেন এনামুল বিজয়। লংগার ভার্সনের দুটি টুর্নামেন্ট বিসিএল ও এনসিএল খেললেও একদিনের ঘরোয়া একটিমাত্র টুর্নামেন্ট আয়োজন করা হয় (ডিপিএল)। আরেকটি ওডিআই টুর্নামেন্ট বাড়ানোর কথা বলেন বিজয়। বিপিএল ছাড়া আর কোনো টি-টুয়েন্টি টুর্নামেন্ট হয় না। তাই এর আগে আরও একটি টুর্নামেন্ট চালুর আহ্বান জানান এ ওপেনার।

৯ম দফা নিয়ে কথা বলতে আসেন নুরুল হাসান সোহান। ঘরোয়া ক্রিকেটে নির্ধারিত একটি সূচি রাখার কথা বলেন তিনি। এতে করে ক্রিকেটাররা নিজেদের প্রস্তুতি করতে পারবে বলে মনে করেন এ উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান।

১০ম পয়েন্টের উল্লেখ করতে ক্যামেরার সামনে আসেন জুনায়েদ সিদ্দিকী। বিপিএল ও ডিপিএলের পাওনা টাকা এখনো পরিশোধ করেনি অনেক ক্লাব। তারা যেনো নির্ধারিত সময়ের আগেই ক্রিকেটারদের সকল বকেয়া পরিশোধ করে দেয়। প্রতি বছর নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যেই যেনো ক্রিকেটারদের পাওনা মিটিয়ে দেয়া হয়।

সর্বশেষ ১১শ দফা নিয়ে কথা বলতে আসেন ফরহাদ রেজা। দেশের বাইরে ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে খেলার বাধ্যবাধকতা নিয়ে বোর্ড যেনো একটু শিথিল হয়। জাতীয় দলের বাইরে থাকা ক্রিকেটাররা যখন ফ্রি থাকে তখন অন্যান্য টুর্নামেন্ট খেলতে পারলে শেখার পথটা পরিষ্কার হয় বলে উল্লেখ করেন এ অলরাউন্ডার। তাই যেনো খেলতে দেয়া হয় বলে দাবি জানান তিনি।

পরে আলোচনার ইতি টানতে আসেন দলনায়ক সাকিব। ঘরোয়া ক্রিকেটের মান নিয়ে কথা তোলেন তিনি। পাইপলাইনের উন্নতি করতে হলে ঘরোয়া ক্রিকেটের দুর্নীতি বন্ধ করতে বলেন সাকিব। নারী ক্রিকেটারদের আনতে না পারায় দুঃখ প্রকাশ করে সাকিব বলেন, হঠাৎ সিদ্ধান্ত নেয়ায় আমরা নারী দলকে ডাকতে পারিনি। তবে তাদের কোনো দাবী থাকলে তারা আমাদের সাথে যোগ দিতে পারে।

তবে বাংলাদেশ ক্রিকেটের বয়স ভিত্তিক দল, অনূর্ধ্ব ১৯ বিশ্বকাপের প্রস্তুতি নেয়ায় তারা এই ধর্মঘটের আওতায় থাকছে না।

এই দাবিগুলো  না মানা পর্যন্ত ঘরোয়া, আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টসহ সব ধরনের ক্রিকেটীয় কার্যক্রম থেকে বিরত থাকবেন ক্রিকেটাররা।

কেন এই আন্দোলন, জানতে চাইলে সাকিব বলেন, এটা যারা দুবছর বা দশ বছর খেলবে তাদের জন্য না। বরং বাংলাদেশ দলের ভবিষ্যত ক্রিকেটারদের মঙ্গলের জন্য আমাদের এই দাবি-দাওয়া।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত